শোবিজ

ঢাবিতে নবান্ন উৎসব পালিত

শোবিজ ডেস্ক: প্রতি বছরের মতো এবারও জাতীয় নবান্ন উৎসব পালিত হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চারুকলা অনুষদের বকুলতলায়। গত শনিবার সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে বাঁশি, দোতারা ও তবলাসহ দেশীয় যন্ত্রসংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হয় এ উৎসব। জাতীয় নবান্নোৎসব উদ্যাপন পর্ষদের চেয়ারম্যান লায়লা হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিকব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, গুণী অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদারসহ অন্যান্য সংস্কৃতিজন। উৎসবটিতে একক ও দলীয় সংগীত, একক ও দলীয় নৃত্য প্রদর্শন করা হয়। সকাল সাড়ে ৯টায় শোভাযাত্রা হয়। অনুষ্ঠানে গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন দেশের বিশিষ্ট সংগীত, নৃত্যশিল্পী ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সদস্যরা। উৎসবে অংশ নিয়ে ফেরদৌসী মজমুমদার বলেন, আমি সাধারণত এমন আয়োজনে আসি না। কিন্তু এ অনুষ্ঠানে এসে দেখছি কী চমৎকার রঙিন পরিবেশ, কী সুন্দর গান-নাচ, ঢোলের বাদ্য! জীবন যান্ত্রিক হয়ে গেছে। এ ধরনের অনুষ্ঠান জীবনের জন্য প্রয়োজন রয়েছে। তিনি আরও বলেন, বাঙালি ঐতিহ্যগুলো যদি আমরা সন্তানদের সামনে তুলে ধরতে পারি, তাহলে তাদের মনে এই বীজগুলো থেকে যাবে। এছাড়া বাঙালি ঐতিহ্য, প্রকৃতি, সংস্কৃতির প্রতি ভালোবাসা আরও বেড়ে যাবে। উদ্যাপন পর্ষদের চেয়ারম্যান লায়লা হাসান বলেন, আমরা এ প্রজš§কে মাটির সোঁদা গন্ধের যে আমেজ, যে স্নিগ্ধতাÑতা শেখাতে চাই। সেসব শিকড়ের সন্ধান দিতে চাই। আয়োজকদের কাছ থেকে জানা যায়, ১৪০৬ বঙ্গাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) এ উৎসবটি প্রথম শুরু হয়েছিল। পরে ১৪০৭ বঙ্গাব্দ থেকে এ আয়োজন করা হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায়। সে থেকেই প্রতি বছর ১ অগ্রহায়ণ চারুকলায় উৎসবটি পালিত হয়ে আসছে। প্রসঙ্গত, এ বছর বাংলা দিনপঞ্জি বদলে যাওয়ায় ১৪২৬ বঙ্গাব্দে প্রথমবারের মতো আশ্বিন মাসের গণনা শুরু হয়েছে ৩১ দিন হিসেবে। সে হিসেবে গত শনিবার ছিল ১ অগ্রহায়ণ। উল্লেখ্য, এ নিয়ে ২১ বারের মতো অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় নবান্ন উৎসব।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..