প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

তলিয়েছে দৌলতদিয়ার ২ ঘাট, দীর্ঘ জটে ভোগান্তি

প্রতিনিধি, রাজবাড়ী: পদ্মার পানি বেড়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় দুটি ফেরিঘাট তলিয়ে যাওয়ায় সেখানে যানবাহনের দীর্ঘ জটে যাত্রী ও চালকদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডবিøউটিএ) দৌলতদিয়া ঘাটের সার্ভেয়ার পাপ্পু কুমার মণ্ডল গতকাল শুক্রবার দুপুরে বলেন, ‘এক রাতে পদ্মার পানি ৮০ সেন্টিমিটার বেড়েছে। যে কারণে দৌলতদিয়ায় ৪ ও ৫ নম্বর ফেরি ঘাটের র‌্যাম তলিয়ে গেছে। দুর্ঘটনা এড়াতে বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে ঘাট দুটি বন্ধ রাখা হয়েছে। দৌলতদিয়া প্রান্তে পাঁচটি ঘাটের মধ্যে এখন তিনটি ঘাটে ফেরি ভিড়ছে।

 পাপ্পু আরও বলেন, ঘাটগুলো সাধারণত তিনটি স্তরে থাকেÑউচ্চ, মধ্যম ও নিচ। এতদিন ঘাটগুলো নিচের স্তরে (লো লেভেল) ছিল। পানি বাড়ার কারণে তা তলিয়ে গেছে। এখন মধ্যম স্তরে তোলা হবে। মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট থেকে র‌্যাম তোলার জন্য রেকার আনা হচ্ছে। রেকার এলেই কাজ শুরু হবে।

সকালে দৌলতদিয়া ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, দুই ঘাট বন্ধ থাকায় অন্য তিনটি ঘাটে ফেরি ভিড়ছে। ঘাট সংকটের কারণে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।

ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পাঁচ কিলোমিটার এলাকায় ছিল যাত্রীবাহী পরিবহন ও পণ্যবাহী ট্রাক। অপরপাশে ঘাট থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরের গোয়ালন্দ মোড় পর্যন্ত ফাঁকা রাখা হয় যানবাহনের আউটপুট-ইনপুটের জন্য।

এরপর আবার গোয়ালন্দ মোড় থেকে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের তিন কিলোমিটারে রয়েছে বাস ও ট্রাকের সারি। সব মিলিয়ে মোট আট কিলোমিটার যানজট হয় ঘাট এলাকায়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সারি বাড়ে। ফলে ভোগান্তিতে পড়েন যানবাহন চালক ও যাত্রীরা।

বরিশাল থেকে ছেড়ে আসা সাকুরা পরিবহনের যাত্রী রামিম খান বলেন, ‘সকাল ১০টায় ঘাট এলাকায় এসেছি। দুপুর ১২টা বাজে এখনও ফেরিতে উঠতে পারিনি। বাস থেকে নেমে জানতে পারলাম দুটি ঘাট বন্ধ রয়েছে। যে স্থানে রয়েছি সেখান থেকে ফেরিতে উঠতে আরও ঘণ্টাখানেক সময় লাগবে।’

আরেক যাত্রী মরজিনা বেগম বলেন, ‘ভোগান্তি তো হচ্ছেই। দুই ঘণ্টার বেশি সময় বসে আছি। আরও কত সময় বসে থাকতে হবে সেটা জানি না। কয়েকটি ঘাট নাকি বন্ধ সেজন্য এই যানজট।’

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক প্রফুল্ল চৌহান বলেন, ‘দৌলতদিয়ায় মোট ঘাট রয়েছে পাঁচটি। এর মধ্যে পানি বাড়ায় ৪ ও ৫ নম্বর ঘাট বন্ধ রয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা জানিয়েছেন, পাটুরিয়া ঘাটে কাজ চলছে। সেখানের কাজ শেষ হলেই দৌলতদিয়া ঘাটের কাজ শুরু হবে। মনে হচ্ছে, কাজ শুরু হতে হতে বিকাল হয়ে যাবে। এখন এই নৌ-পথে ছোট-বড় মিলে ১৮টি ফেরি চলাচল করছে।’