প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টকে ট্রাম্পের ফোন

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েনের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দেশটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্কোচ্ছেদ হয়েছিল ১৯৭৯ সালে। এর মধ্যে দুই দেশের সম্পর্কোন্নয়নে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। দীর্ঘদিনের মার্কিন এ নীতি ভেঙে ট্রাম্প ফোনালাপ করলেন। খবর বিবিসি।

ট্রাম্পের ট্রানজিশন দলের কর্মীরা বলেছেন, নিজেদের মধ্যে ফোনালাপে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন দুজনই অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং নিরাপত্তা ইস্যুতে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপনের বিষয়ে কথা বলেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দুই দেশের এই পদক্ষেপ অবশ্য চীনকে রুষ্ট করতে পারে।

কারণ তাইওয়ানকে একটি বিচ্ছিন্নতাকামী প্রদেশ হিসেবে উল্লেখ করে থাকে চীন। ওই দ্বীপটি লক্ষ্য করে চীনের শত শত মিসাইল প্রস্তুত রয়েছে। প্রয়োজনে জোর করে এর কর্তৃত্ব নেওয়ারও হুমকি রয়েছে চীনের পক্ষ থেকে। যদিও সর্বশেষ এ ঘটনার পর বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য আসেনি। ট্রাম্প সাই ইংকে গত জানুয়ারির নির্বাচনে বিজয়ের জন্য অভিনন্দনও জানান। ৫৯ বছর বয়সী তাইওয়ানের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট তাইপে এবং বেইজিং সম্পর্ক বদলানোর বিষয়ে আশাবাদী।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্সিয়াল কমিশন সাইবার নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য জরুরি ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।