প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

তাজা সবজি সরবরাহে নতুন উদ্যোগ ‘কৃষক বাজার’

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: শহরে তাজা সবজি সরবরাহের লক্ষ্যে ‘ফ্রেশমার্ট সাপ্তাহিক কৃষক বাজার’ নামে নতুন একটি মেলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কৃষকদের সহায়তার জন্য দি ইনোভেশন অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ফর এন্টারপ্রাইজ (আইআইসিই) ইউএসএআইডির সহায়তায় এ মেলা শুরু করেছে। সরাসরি কৃষকের অংশগ্রহণে রাজধানীর তিনটি স্থানে ধারাবাহিকভাবে এটি চলছে।

গত সপ্তাহে মতিঝিলে প্রথমবারের মতো বসে কৃষক বাজার। গতকাল শুক্রবার এর দ্বিতীয় পর্ব উদ্বোধন হয় বনানী মাঠে। আজ শনিবারও দিনব্যাপী বাজার বসবে সেখানে। আগামী সপ্তাহের শুক্র ও শনিবার রাজধানীর উত্তরা ফ্রেন্ডস ক্লাব মাঠে ‘কৃষক বাজারের’ তৃতীয় পর্ব উদ্বোধন করা হবে।

উদ্যোক্তারা জানান, দেশে প্রথমবারের মতো সরাসরি কৃষকের অংশগ্রহণে এ বাজার চালু হয়েছে। ভোলা, নড়াইল, খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার কৃষকরা তাদের তাজা ও কীটনাশকমুক্ত শাকসবজি ও ফলমূল নিয়ে মেলায় আসেন। দর্শনার্থীদের কাছে ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করেন সেগুলো। ইউএসএআইডির ডাই প্রকল্পের অর্থায়নে চালু হওয়া এ মেলার অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের কৃষকের উৎপাদিত শাকসবজি শহরের গ্রাহকদের কাছে সরাসরি পৌঁছে দেওয়া।

সূত্র জানায়, শহরে তাজা শাকসবজি সহজে পাওয়া যায় না। অধিকাংশ সবজিই প্রথমে তাজা থাকলেও পরে তাতে নানা রকম কেমিক্যাল মেশানো হয়। এছাড়া মধ্যস্বত্ব¡ভোগীদের কারণে কৃষকরাও ন্যায্যমূল্য পান না। এ-সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে আইআইসিই কৃষক ও ভোক্তাদের মধ্যে একটি সেতুবন্ধ তৈরির লক্ষ্যে কাজ শুরু করে।

গতকাল বনানী মাঠে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ। এ সময় অন্যদ্যের মধ্যে ব্যাংক এশিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরফান আলী, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক হামিদুর রহমান, ইউএসএইড ইকোনমিক গ্রোথ অফিসের ডেপুটি ডিরেক্টর ম্যাট জন কার্টিস উপস্থিত ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন আইআইসিই সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন মোশাররফ।

উদ্বোধনী বক্তব্যে আবদুল মাতলুব আহমাদ বলেন, ‘আমরা গ্রামে গিয়ে তাজা সবজি কিনতে পারি না। এ রকম উদ্যোগ নেওয়া হলে কৃষিপণ্যে গ্রামের কৃষকরা বেশি দাম পাবে। অন্যদিকে ক্রেতারা কম দামে তা কিনতে পারবে।’ কৃষিপণ্য সংরক্ষণে প্যাকেজিং ও কম দামে মানসম্মত পণ্যপ্রাপ্তি নিশ্চিতকরণে উৎপাদক-ক্রেতার সরাসরি যোগাযোগের ওপর জোর দেন তিনি।

এ বিষয়ে কৃষক বাজারের প্রচার সম্পাদক আবদুল্লাহ হাসান শেয়ার বিজকে জানান, উদ্যোগটি মূলত প্রাথমিকভাবে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য করা হয়েছে। এর মাধ্যমে কৃষক ও গ্রাহকের মধ্যে এটি একটি সেতুবন্ধ নির্মাণ করবে। এ প্রকল্পের আওতায় সঠিক কৃষিপণ্য ব্যবহারের জন্য কৃষকদের তত্ত্বাবধান চালাবে।

আজ বনানী মেলায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকও অংশ নেবেন বলে জানা গেছে। সার্বিক এ প্রকল্পের অংশ হিসেবে একটি ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে, যার মাধ্যমে আগ্রহীরা তাজা শাকসবজি ও ফল হোম ডেলিভারি পাবেন।

উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি প্রায় ১০ হাজার কৃষককে নিয়ে গত তিন বছর ধরে নানা প্রকল্পে কাজ করেছে। বাংলাদেশের কৃষি খাতে পরিবর্তন আনার লক্ষ্যে এসব প্রকল্পে প্রায় ৩৫ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাটি। ওই কৃষকদের মধ্য থেকে বাছাই করে অনেককে মেলায় নিয়ে আসা হয়েছে। মেলায় লার্নিং ক্লাব নামে একটি বুথ রাখা হয়েছে, যেখান থেকে ভোক্তারা সবজি কেনার পাশাপাশি কৃষকের কাছ থেকে ভেজালমুক্ত শাকসবজি উৎপাদনের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে।