প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

তিনিই সুখী যার দাঁত ঠিক

ডা. সঞ্চিতা দাস রাখী: প্রচণ্ড দাঁত ব্যথায় মাঝরাতে আচমকা ঘুম ভেঙে গেলো। এত রাতে ডেন্টিস্টের কাছে যাওয়ার সুযোগ নেই, বাসায় নেই কোনো ওষুধপত্রও। এদিকে দাঁতের ব্যথায় প্রাণ যাওয়ার উপক্রম। কী করবেন?

তখন মাথা ঠাণ্ডা রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ। একটু চিন্তা করলে হাতের কাছে পেয়ে যাবেন সমাধান। আসুন, জেনে রাখি তেমন কয়েকটি উপায়। অনেক সময় দাঁতের ফাঁকে আটকে থাকা খাদ্যকণার কারণে দাঁতে যন্ত্রণা হতে পারে। প্রথমে হালকা করে ব্রাশ করে নিন। চাইলে ফ্লসও করতে পারেন। এবার সুবিধামতো অনুসরণ করুন নিচের পদ্ধতিগুলোর একটি।

 

লবণ পানিতে কুলকুচি করুন

 

দাঁতের ব্যথা উপশমে দারুণ কাজ করে লবণ পানি। আমরা ডাক্তাররা এটি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়ে থাকি। এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে আধা চা চামচ লবণ গুলে নিন। এ পানি মুখের ভেতরে কিছুক্ষণ রাখুন। পরে কলকুচি করে ফেলে দিন। এভাবে চালিয়ে যান কয়েকবার।

 

লবঙ্গ গুঁড়ো করে দাঁতের ওপর দিন

 

এটি বেশ পুরনো, তবে সহজ একটি পদ্ধতি। লবঙ্গ থেতলে বা গুঁড়ো করে সামান্য পানি বা অলিভ অয়েল মিশিয়ে পেস্টের মতো করে দাঁতের ওপর লাগিয়ে রাখুন।

 

ভ্যানিলা এক্সট্র্যাক্ট ব্যবহার করুন

 

কেক বা মিষ্টিজাতীয় খাবার তৈরির জন্য আমরা অনেকে ভ্যানিলা এক্সট্র্যাক্ট বাসায় রাখি। এ উপাদান অসহ্য দাঁত ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে পারে। একটি কটন বাড কিংবা তুলোর বলে লাগিয়ে নিন এটি। এরপর ব্যথাযুক্ত দাঁতের ওপর চেপে ধরুন। একইভাবে ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন।

 

কর্পূরে মিলবে ব্যথামুক্তি

কিছুটা কর্পূর তুলোয় মাখিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগাতে পারেন। তবে সতর্ক থাকতে হবে। অসাবধানতাবশত কর্পূর গিলে ফেললে ক্ষতি হতে পারে।

 

ধরে রাখুন আদা, পুদিনা শসা

 

এক টুকরো আদা ভালো করে ধুয়ে মুখের যে পাশে দাঁত ব্যথা, সেখানে রেখে চিবুতে থাকুন। দাঁতের ফাঁকে কিছুক্ষণ রেখেও দিতে পারেন। ব্যথা পালাবে। একইভাবে পুদিনা পাতা চিবাতে পারেন। টুকরো শসা দাঁতের ওপর রাখতে পারেন।

 

বেকিং সোডা ব্যবহার করুন

 

প্রথমে একটি কটন বাড পানিতে ভিজিয়ে নিন। এরপর সোডার কৌটায় ডুবিয়ে নিন। এতে করে কটন বাডে বেকিং সোডা লেগে যাবে। এবার দাঁতের ওপর লাগিয়ে নিন। আরাম পাবেন।

 

গরম চা পান করুন

 

এক কাপ গরম চা অল্প অল্প চুমুকে পান করতে থাকুন। গরম চায়ের পাশাপাশি অব্যবহƒত টি-ব্যাগ কিংবা চা পাতাটুকুও কাজে লাগাতে পারেন। পাতলা পরিষ্কার একটুকরো কাপড়ে মুড়িয়ে নিন চা পাতা। দাঁতের ফাঁকে তা রেখে দিন কিছুক্ষণ। এছাড়া সরাসরি টি-ব্যাগও রাখতে পারেন দাঁতের ওপর।

উপরের সব পদ্ধতি সাময়িক, সম্পূর্ণ নিরাময়ের জন্য নয়। মনে রাখবেন, কোনো একটি বিশেষ কারণে দাঁত ব্যথা হয়ে থাকে। সে কারণটি খুঁজে বের করে উপযুক্ত চিকিৎসা দিতে পারে ডাক্তার। তাই যন্ত্রণাময় সময়টুকু কাটিয়ে শিগগির একজন ডেন্টিস্টের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা বুঝুন, সুস্থ দাঁতে হাসুন প্রাণ খুলে।

 

ওরাল ও ডেন্টাল সার্জন বিডিএস (ঢাকা)