কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

তিন কোম্পানির প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি হিসাববছরের অনিরীক্ষিত প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিচ হ্যাচারি লিমিটেড, বঙ্গজ লিমিটেড এবং দি ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বিচ হ্যাচারি লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ২০২০) ইপিএস হয়েছে সাত পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল আট পয়সা (লোকসান)। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৯ টাকা ৭২ পয়সা আর ৩০ জুন ২০২০ ছিল ৯ টাকা ৮০ পয়সা।

৩০ জুন ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য কোনো লভ্যাংশ না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ। আর এ-সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৮ জানুয়ারি। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা (লোকসান)। আর শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৯ টাকা ৮০ পয়সা।

বঙ্গজ লিমিটেড: প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর, ২০২০) ইপিএস হয়েছে ১২ পয়সা (লোকসান), যা আগের বছর একই সময় ছিল ২৫ পয়সা। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ১৭ পয়সা আর ৩০ জুন ২০২০ ছিল ২১ টাকা ২৯ পয়সা। আর প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ৫৫ পয়সা (লোকসান), আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২২ পয়সা।

২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য পাঁচ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬০ পয়সা এবং ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২১ টাকা ৬৭ পয়সা। আর শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে এক টাকা ৫৪ পয়সা।

দি ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড: চলতি হিসাববছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর, ২০২০) শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে চার টাকা ৯৫ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল চার টাকা ৪৩ পয়সা। আর প্রথম দুই প্রান্তিকে (জুলাই-ডিসেম্বর, ২০২০) ইপিএস হয়েছে আট টাকা ১৯ পয়সা, আগের বছর একই সময় ছিল সাত টাকা ৩০ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৬১ টাকা ২৩ পয়সা, যা ২০২০ সালের ৩০ জুন ছিল ৫৬ টাকা ৮৮ পয়সা। আর প্রথম দুই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১০ টাকা ৪৮ পয়সা, অথচ আগের বছর একই সময় ছিল তিন টাকা ৬৯ পয়সা।

এদিকে সম্প্রতি ৩০ জুন ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য সাড়ে ৩৮ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের এই কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ১২ টাকা ৫৬ পয়সা এবং ৩০ জুন ২০২০ শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৫৬ টাকা ৮৮ পয়সা। আর ওই সময়ে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১৪ টাকা আট পয়সা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..