প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

তুরস্কে ৫.৯ মাত্রার ভূমিকম্প, আহত ৫০

শেয়ার বিজ ডেস্ক : তুরস্কের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে গোলিয়েকা জেলায় এক ভূমিকম্পে অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। রিখটার স্কেলে এ ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৯। খবর: ডেইলি সাবাহ।

এর আগে ইউরোপিয়ান-মেডিটেরানিয়ান সিসমোলজিক্যাল সেন্টার (ইএমএসসি) জানিয়েছিল, ভূমিকম্পটি ৬ মাত্রার এবং এর উৎপত্তি ভূপৃষ্ঠের ২ কিলোমিটার গভীরে।

তুরস্কের জরুরি দুর্যোগ মোকাবিলা কর্তৃপক্ষ (এএফএডি) জানিয়েছে, গতকাল বুধবার স্থানীয় সময় ভোররাত ৪টা ৮ মিনিটে ইস্তাম্বুল থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার পূর্বে দুসজে প্রদেশের গোলিয়েকায় ভূমিকম্পটির উৎপত্তি। এতে প্রদেশটির কিছু ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এএফএডি জানিয়েছে, তারা ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোয় কম্বল ও তাঁবু পাঠিয়েছে। ভূমিকম্পে দুসজেতে ৩৭ জন আহত হওয়ার পাশাপাশি জোংগুলদাক, বুর্সা ও ইস্তাম্বুলেও কয়েকজন আহত হয়েছে। ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে উত্তর-পশ্চিম বোলু, সাকারিয়া, কোকেলি, বিলেসিক, পশ্চিম ইজমির, কুতাহ্যা শহরেও।

ভূমিকম্পটিতে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা কারও নিহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোইলু বলেন, গোলিয়েকা শহরের আশপাশের গ্রামগুলোর খবর নেয়া সম্পন্ন করেছি আমরা। সেখান থেকে গুরুতর ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। সেখানে শুধু কিছু শস্যাগার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভূমিকম্পের পর ১৮টি আফটারশক রেকর্ড করা হয়েছে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে উপদ্রুত অঞ্চলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ভূমিকম্পের সময় বিদ্যুৎ চলে গিয়েছিল, পরে কর্তৃপক্ষ বিদ্যুৎ সরবরাহ পুনর্বহাল করেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, ওই এলাকার যে আটটি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তার মধ্যে দুসজের আদালত ভবনও রয়েছে।

ইউরোপের দেশ তুরস্ক ভূমিকম্পপ্রবণ। দেশটির ভেতর দিয়ে বেশ কয়েকটি টেকটোনিক ফল্ট লাইন চলে গেছে। এ কারণে প্রায়ই ভূমিকম্প হয় দেশটিতে। এর আগে ২০২০ সালে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ইজমিরে এক ভূমিকম্পে শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছিল।