সুস্বাস্থ্য

তৃষ্ণার সমান পানি কখনও এর বেশি নয়

রতন কুমার দাস: শুধু বিশুদ্ধ ও পরিমিত পানি পানে অনেক রোগ থেকে দূরে থাকা যায়। বিষয়টি প্রমাণ করেছে জাপানের চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা। এ কারণে জাপানিদের মধ্যে নিয়ম মেনে পানি পান করার রেওয়াজ রয়েছে।

দেশটির চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের মতে, পরিমিত পানি পান করে অনেক সমস্যায় উপকার পাওয়া যায়। এর মধ্যে রয়েছে মাথাব্যথা, ব্যথা বা যন্ত্রণা, হার্টের রোগ, দ্রুত হƒৎস্পন্দন, অতিরিক্ত ওজন, অ্যাজমা, টিবি, কফ, মেনিনজাইটিস, কিডনি ও মূত্রবিষয়ক রোগ প্রভৃতি। আরও রয়েছে বমি, গ্যাস্ট্রিক, ডায়রিয়া, ডায়াবেটিস, চোখের নানা রোগ, ক্যানসার, মস্তিষ্কের সমস্যাজনিত সব ধরনের রোগ, কান, নাক ও গলার সব ধরনের সমস্যা।

দেহের অভ্যন্তরীণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গগুলোর সঠিক কর্ম সম্পাদনের জন্য প্রয়োজন পানি।

দেহের অভ্যন্তরে পানি যেসব কাজ করে:

#      পানি রক্ত ও কোষে অক্সিজেনসহ অন্য পুষ্টি উপাদান সরবরাহ করে।

#      রক্ত সরবরাহ ও সঞ্চালন বাড়ে।

#      দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। পানির অভাবে তাপমাত্রা বেড়ে যেতে পারে।

#      হজম শক্তি বাড়ায় ও হজম প্রক্রিয়া ঠিক রাখে।

পরিমিত পানি পানের উপকারিতা:

#      পানি কোষ্ঠকাঠিন্য কমায়। ঠিকমতো পান না করলে শরীর সব পানি শুষে নেয়, এতে কোলন শুষ্ক হয়ে যায়, ফলে শরীর থেকে বর্জ্য পদার্থ ঠিকমতো নির্গত হয় না। তাই পানির পরিমাণ ঠিক থাকলে কোলনে কোনো বর্জ্য জমতে পারে না।

#      কিডনির পাথর হওয়া থেকে বাঁচায়। কারণ, পানি ইউরিনের লবণ ও খনিজ ভেঙে দেয়। ফলে কিডনিতে পাথর হয় না।

#      একটু পরপর পানি পান করলে তাই মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকা যায় এবং শারীরিক শক্তি বাড়ে।

#      পানি রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়, তাই উচ্চ রক্তচাপ কমে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..