তেঁতুলিয়ায় আবারও দেশের সর্বনিন্ম তাপমাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইতে শুরু করেছে দেশের সবচেয়ে উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে। গতকাল সকালে তেঁতুলিয়া উপজেলায় দেশের সর্বনিন্ম তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র জানায়, কাল সকাল ৯টায় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রাও কমে দাঁড়িয়েছে ২২ দশমিক এক ডিগ্রিতে।

বিগত দুই দিন ধরে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি ও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা বেড়ে যায়। বুধবার (১২ জানুয়ারি) তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১৪ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃহস্পতিবার ১৪ দশমিক দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল। শুক্রবার দিনের বেলা মাঝে মাঝে সূর্যের মুখ দেখা গেলেও রোদের তাপ তেমন ছিল না। দিনের বেলা মৃদু শৈত্যপ্রবাহও ছিল। ফলে দিনে পরিবেশ ছিল বেশ ঠাণ্ডা। বিকালের পর থেকে ঠাণ্ডা কিছুটা বেড়েছে। এতে অসহায় ছিন্নমূল মানুষ দুর্ভোগে পড়েছেন। শীতের প্রকোপে জেলার বিভিন্ন এলাকায় শিশু ও বৃদ্ধদের মাঝে শীত ও শীতজনিত রোগবালাই দেখা দিয়েছে।

তেঁতুলিয়ার আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ জানান, মেঘলা থাকায় গত দুই দিন তাপামাত্রা কিছুটা বেড়েছিল। মেঘ কেটে গিয়ে শৈত্যপ্রবাহ বেড়ে যাওয়ায় আবারও তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে। শুক্রবার সর্বনি¤œ ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের উচ্চ পর্যবেক্ষক জীতেন্দ্র নাথ রায় বলেন, কয়েক দিন বিরতির পর আবারও তেঁতুলিয়ায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে শুরু করেছে। সম্প্রতি আকাশে মেঘ জমে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হওয়ায় তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছিল। এখন তেঁতুলিয়ার আকাশে মেঘ নেই বললেই চলে। সেইসঙ্গে উত্তরের ভারী শীতল বাতাস তেঁতুলিয়ায় সরাসরি প্রবেশ করায় তাপমাত্রা কিছুটা কমে গেছে। এতে শীত বেশি অনুভূত হচ্ছে। এ ছাড়া আকাশের উপরিভাগে ঘন কুয়াশা ও জলীয় বাষ্প থাকায় সূর্যের তীব্রতা ভূপৃষ্ঠে আসতে না পারায় দিনেও বেশি শীত অনুভূত হচ্ছে। আগামী কয়েক দিন তেঁতুলিয়ার এমন আবহাওয়া স্থিতিশীল থাকতে পারে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৫২  জন  

সর্বশেষ..