সারা বাংলা

দরপত্র ছাড়াই স্কুলের গাছ কর্তন

প্রতিনিধি, নাটোর: নাটোরের গুরুদাসপুরে দরপত্র ছাড়াই চাপিলা ইউনিয়নের ৪১ নং চাপিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঁচটি গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে। এখানে তিন লাখ টাকার গাছ কাটা হয়েছে বলে জানা যায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চাপিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গায় পাঁচটি গাছ কাটা হচ্ছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিজে দাঁড়িয়ে থেকে শ্রমিক দিয়ে ওই মেহগনির গাছ কাটাচ্ছেন। এলাকাবাসী দরপত্র ছাড়াই গাছ কাটার বিষয়ে নিষেধ করলেও কারও কথা তিনি কর্ণপাত করেননি বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে আলমগীর হোসেন বলেন, ম্যানেজিং কমিটি ও এলজিইডি কর্মকর্তাদের অনুমতি নিয়েই গাছ কাটা হয়েছে। বিদ্যালয়ের উন্নয়নের জন্য গাছগুলো কাটা হয়েছে। পরে টেন্ডার আহ্বান করে উš§ুক্তভাবে গাছগুলা বিক্রি করা হবে।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইউপি সদস্য আবদুর রহমান জানান, গাছ কাটার পূর্বে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সব সদস্যদের অনুমতি নিয়ে রেজুলেশনের মাধ্যমে গাছ কাটা হচ্ছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..