স্পোর্টস

দাপুটে জয়ে শুরু বাংলাদেশের সাফ মিশন

ক্রীড়া ডেস্ক: শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের শুরুটা দাপুটে হয়েছে। গতকাল পশ্চিম বাংলার নদীয়া জেলার কল্যাণী স্টেডিয়ামে ভুটানকে এক কথায় উড়িয়ে দিয়েছে লাল-সবুজ প্রতিনিধিরা।
বাংলাদেশের ব্রিটিশ কোচ রবার্ট মার্টিন রয়েলস আগেই জানিয়েছেন, জয় ছাড়া কিছুই ভাবছেন না। গতকাল মাঠের ফুটবলেও তার শিষ্যরা সেটাই প্রমাণ করেছে। ফলটাও তাই হাতে হাতেই পেয়েছে তারা ভুটানকে ৫-২ গোলে হারিয়ে।
গতকাল কল্যাণী স্টেডিয়ামে সাফ মিশনে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শুরু থেকেই দাপট দেখায় বাংলাদেশের কিশোররা। যে কারণে ভুটানের জালে বল জড়াতেও বেশি সময় লাগেনি তাদের। ১৫ মিনিটে বাংলাদেশকে এগিয়ে দেয় মিরাদ। ২ মিনিট পরই অবশ্য ম্যাচে ফিরে এসেছিল ভুটান। তবে ফুবের গোল আনন্দ মিনিট চারেকের বেশি স্থায়ী হয়নি। গোলমুখে জটলা থেকে গোল করে বাংলাদেশকে আবার এগিয়ে নেয় রহমান।
এদিকে ম্যাচের ৩২তম মিনিটে আবার সমতায় ফেরে ভুটান। এজন্য অবশ্য দায়ী ছিল লাল-সবুজদের গোলরক্ষক। শট নিতে গিয়ে প্রতিপক্ষের স্ট্রাইকার চুজাংইয়ের পায়ে সরাসরি বল তুলে দিয়েছিল গোলরক্ষক সাব্বির। সে সুযোগ দারুণভাবেই কাজে লাগায় প্রতিপক্ষের ওই তারকা। প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মুহূর্তে অবশ্য সরকারের পারফেক্ট নম্বর নাইনের মতো করা গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।
বিরতির পর ভুটানের কঠিন প্রতিরোধের মুখে পড়ে বাংলাদেশের কিশোররা। তারপরও দমে যায়নি তারা। তাইতো ম্যাচের ৮৩তম মিনিটে মিরাদের প্লেসিং শট জালে জড়ালে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় বাংলাদেশ। গোলটি মিরাদের হলেও পুরো কৃতিত্ব আরিফের। মাঠের বাঁ প্রান্তে তার পাসিংয়েই প্রথমে বল হারিয়েছিল ভুটান। সেটা এক পা ঘুরে আরিফের পায়ে আসতেই বাঁ পায়ের মায়াজালে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়ে। আলামিনের পা ঘুরে আসা বলে শুধু পা ছুঁয়েই বাকি কাজ সেরেছে মিরাদ। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে দারুণ ফ্রি-কিকে দলের বড় জয় নিশ্চিত করেন ইমন ইসলাম বাবু।
আগামীকাল সাফে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল দল। এরপর ২৭ আগস্ট নেপাল এবং ২৯ আগস্ট স্বাগতিক ভারতের মুখোমুখি হবে দলটি।

সর্বশেষ..