প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

দিল্লিতে এএপির বিধায়কের গাড়িতে গুলি, কর্মী নিহত

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ভরতের রাজধানী নয়াদিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে জয় পাওয়ার পর মন্দির থেকে ফেরার সময় আম আদমি পার্টির (এএপি) সদ্য নির্বাচিত এক বিধায়কের গাড়িতে গুলি করা হয়েছে। এতে দলটির এক কর্মী নিহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১০টার দিকে দক্ষিণ দিল্লির কিষাণগড়ের এ ঘটনায় দলটির আরও এক কর্মী আহত হয়েছেন। খবর: এনডিটিভি।

দিল্লির মেহরাউলি আসন থেকে নির্বাচিত বিধায়ক নরেশ যাদব তখন গাড়িতে ছিলেন। অল্পের জন্য অক্ষত অবস্থায় রক্ষা পান তিনি। গুলিবর্ষণের আগে তোলা এক ছবিতে দেখা গেছে, নিহত স্বেচ্ছাসেবক অশোক মান গাড়িতে বিধায়ক নরেশের পেছনে দাঁড়িয়ে হাসিমুখে বিজয় চিহ্ন দেখাচ্ছেন।

গুলিবর্ষণের এ ঘটনায় তিনজন জড়িত ছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের সূত্রগুলো জানিয়েছে, আটক ব্যক্তি গুলি করার কথা স্বীকার করে অশোক মান ও তার ভাতিজা হারেন্দারকে হত্যা করা তাদের উদ্দেশ্য ছিল বলে জানিয়েছে। বিধায়ক নরেশ তাদের লক্ষ্য ছিল না বলে দাবি করেছে। ওই ঘটনায় হারেন্দার গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

নিজেদের দাপ্তরিক টুইটার পেইজে এএপি বলেছে, ‘মন্দির থেকে ফেরার সময় এএপি বিধায়ক নরেশ যাদব ও তার সঙ্গে থাকা স্বেচ্ছাসেবকদের দিকে গুলি ছোড়া হয়েছে। গুলিতে জখম হয়ে অন্তত এক স্বেচ্ছাসেবক প্রাণ হারিয়েছেন। আরেকজন আহত হয়েছেন।’   পরে আরেক টুইটে এএপি বলে, ‘এএপি বিধায়ক নরেশ যাদবের ওপর হামলায় স্বেচ্ছাসেবক অশোক মান প্রাণ হারিয়েছেন। আজ আমরা আমাদের পরিবারের একজন সদস্যকে হারালাম। তার আত্মা শান্তি পাক।’

বিধায়ক নরেশ জানিয়েছেন, মন্দির থেকে ফেরার সময় খোলা জিপে সমর্থকদের নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি, তখন অজ্ঞাত ব্যক্তিরা গাড়িতে গুলি করে। বিজয় উদ্যাপনে ওই এলাকায় তখন পটকা ফুটছিল আর প্রথমে গুলির শব্দকে পটকার আওয়াজ বলে ভেবেছিলেন তিনি।