স্পোর্টস

দুঃসময় কাটছেই না আর্সেনালের

ক্রীড়া ডেস্ক : টানা ব্যর্থতায় নতুন কোচ মিকেল আর্তেতার অধীনেও ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না চেলসি। সে ধারাবাহিকতায় এবার ইউরোপা লিগ থেকেও বিদায় নিয়েছে দলটি। গত পরশু ঘরের মাঠে অলিম্পিয়াকোসের কাছে শেষ মুহূর্তে গোলেই মূলত কপাল পুড়ে ইংলিশ জায়ান্টদের। এদিকে ঘরের মাঠে জিতেও বাদ পড়েছে আয়াক্স।

ঘরের মাঠে অলিম্পিয়াকোসের বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানোর ম্যাচটি ১-২ গোলের ব্যবধানে হারে আর্সেনাল। ম্যাচের ৫৩ মিনিটে পেপ আবু সিসের দেওয়া গোলে নির্ধারিত সময়ে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল অলিম্পিয়াকোস। এর আগে প্রতিপক্ষের মাঠে ১-০ গোলে জিতে ফিরেছিল আর্সেনাল। ফলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ১১৩ মিনিটে পিয়েরে-অ্যামরিক অবামেয়াংয়ের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল দলটি। তবে ১১৯তম মিনিটে স্বাগতিকদের স্তব্ধ করে দেয় ইউসুফ আল আরাবি।

এদিকে ঘরের মাঠে গেতাফের বিপক্ষে আয়াক্স জিতে ২-১ গোলে। কিন্তু এর আগে স্প্যানিশ ক্লাবটির মাঠে তারা হেরে এসেছিল ০-২ গোলের ব্যবধানে। ফলে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে জিতেও বাদ পড়তে হয়েছে দলটির। গত পরশু পঞ্চম মিনিটেই জেমি মাতা গোল দিলে লক্ষ্যটা কঠিন হয়ে যায় আয়াক্সের। এরপর তাদের কমপক্ষে চারটি গোল দিতে হতো। তবে দানিলো ও অলিভেরার গোলে জয় পেলেও তাতে লাভ হয়নি দলটির।

আর্সেনাল ও আয়াক্স ইউরোপা লিগ থেকে বাদ পড়লেও ঠিকই টিকে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ঘরের মাঠে ক্লাব বুর্গেকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে দলটি। এর আগে প্রতিপক্ষের মাঠে ১-১ গোলের ড্র মানতে হয়েছিল দলটিকে। গত পরশু অবশ্য তেমনটা হতে দেননি ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফ্রেড। তিনি করেন জোড়া গোল। এছাড়া ব্রুনো ফার্নান্দেস, স্কট ম্যাকটমিনি ও ওডিওন ইগালো একটি করে গোল দেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..