কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

দুই কোম্পানির নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ৩৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে দি এক্মি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড। আর ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ল্যাম্পস লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
এক্মি ল্যাবরেটরিজ: ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ১২ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর মিরপুর-১৪তে অবস্থিত পিএসসি কনভেনশন হলে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ অক্টোবর।
আলোচিত সময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ছয় টাকা ৮১ পয়সা এবং ৩০ জুন তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৮৬ টাকা ৬৯ পয়সা।
এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর তিন দশমিক ৩৮ শতাংশ বা দুই টাকা ৪০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ৭৩ টাকা ৫০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৭৩ টাকা ৩০ পয়সা। দিনজুড়ে দুই লাখ ৯৯ হাজার ৯৯৭শেয়ার মোট ৪১৮ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর দুই কোটি ১৭ লাখ ৮২ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনিম্ন ৭১ টাকা ২০ পয়সা থেকে ৭৩ টাকা ৫০ পয়সায় লেনদেন হয়। গত এক বছরে ৬৫ টাকা ৬০ পয়সা থেকে ৯৭ টাকা ৫০ পয়সায় ওঠানামা করে।
২০১৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি। ৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২১১ কোটি ৬০ লাখ ২০ হাজার টাকা। কোম্পানির রিজার্ভের পরিমাণ এক হাজার ৩৯ কোটি ৮৯ লাখ ৩০ হাজার টাকা।
বাংলাদেশ ল্যাম্পস লিমিটেড: ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৪ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১১টায় রাজধানীর গুলশান-১ এ অবস্থিত ঢাকা বাংকুয়েট হলে এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ নভেম্বর।
আলোচিত সময় কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ১২ পয়সা এবং ৩০ জুন তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৯২ টাকা ৩৪ পয়সা।
১৯৮১ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটি। ৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৯ কোটি ৩৭ লাখ ১০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট ৯৩ লাখ ৭০ হাজার ৬০৮ শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের কাছে ৬১ দশমিক ৯৬ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর কাছে ১৩ দশমিক ২১ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারীর কাছে শূন্য দশমিক শূন্য তিন শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ২৪ দশমিক ৮০ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

সর্বশেষ..