খবর

দুই জাপানি নাগরিকের প্যান্টে ১২ কেজি স্বর্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই জাপানি নাগরিকের হাফপ্যান্টের মধ্য থেকে এক কেজি ওজনের ১০টি ও ১০০ গ্রাম ওজনের ২০টি স্বর্ণের বারসহ ১২ কেজি স্বর্ণসমেত তাদের আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। গত বুধবার রাতে তাদের আটক করা হয়।
শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আটকরা হলেন টাকিও মিমুরা এবং শুইচি সাতোক।
মহাপরিচালক বলেন, গোপন তথ্য থাকায় আগে থেকে শুল্ক উপ-পরিচালক পায়েল পাশার নেতৃত্বে নজরদারি করা হয়। মালয়েশিয়া থেকে এয়ার এশিয়া ফ্লাইটের একে-৭১-এ রাত ১২টায় শাহজালালে অবতরণ করেন ওই দুই জাপানি নাগরিক। গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার সময় তাদের শুল্ক গোয়েন্দা চ্যালেঞ্জ করে। এ সময় তারা স্বর্ণ থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তাদের লাগেজ স্ক্যানিং করে কিছু না পাওয়া গেলে দেহ আর্চওয়ে করে দেহে ধাতব বস্তুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এরপর কাস্টম হাউজের ব্যাগেজ কাউন্টারে এনে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে তাদের দেহ তল্লাশি করা হয়। এ সময় কোমরে হাফপ্যান্টের ভেতরে বিশেষভাবে স্কচটেপে লুকানো এক কেজি ওজনের ১০টি ও ১০০ গ্রাম ওজনের ২০টি স্বর্ণের বারসহ ৩০টি বারে ১২ কেজি স্বর্ণ পাওয়া যায়, যার বাজারমূল্য আনুমানিক ছয় কোটি টাকা। আটকদের বিরুদ্ধে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা ও ফৌজদারি মামলা দায়ের করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, জাপানি নাগরিকের কাছ থেকে চোরাচালানের স্বর্ণ উদ্ধারের বিষয়টি বাংলাদেশে এবারই প্রথম।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..