আজকের পত্রিকা সর্বশেষ সংবাদ স্পোর্টস

দুই হাজার ডলারে বিক্রি আকবর আলির গ্লাভস

ক্রীড়া প্রতিবেদক: করোনাভাইরাসে অনেকটাই থমকে আছে বিশ্ব। কাজ বন্ধ। এ কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত নিম্মবিত্ত মানুষেরা। এ অবস্থায় তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন অনেকেই। আছেন ক্রিকেটাররাও। অনেকেই নিলামে তুলছেন তাদের প্রিয় ব্যাট। কিছুদিন আগে তেমনটাই করতে দেখা গেছে সাকিব আল হাসানকে। তিনি তার বিশ্বকাপে খেলা ব্যাট নিলামে তুলেন। যা বিক্রি হয় ২০ লাখ টাকায়।

এবার মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে মিলেছে প্রায় ১৭ লাখ টাকা। তার ডাবল সেঞ্চুরি গড়ার ব্যাটটি নিয়ে অবশ্য বেশ নাটকই হয়েছে। দাম উঠে গিয়েছিল ৪১ লাখ টাকা পর্যন্ত। ভুয়া ক্রেতাদের উৎপাতে এজন্য মাঝে কয়েকবার বন্ধ রাখতে হয়েছে নিলাম কার্যক্রম। তবে পাকিস্তানের তারকা অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি নিজের দাতব্য ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ২০ হাজার ডলারে (১৭ লাখ টাকায়) কিনে নিয়েছেন মুশফিকের ব্যাটটি। ৬ লাখ টাকা ছিল তার ব্যাটের ভিত্তি মূল্য। এই ব্যাটেই দেশের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিটি করেন তিনি।

২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গলে এ ব্যাট দিয়ে ২০০ রানের ইনিংস খেলেন মুশফিক, টেস্ট ক্রিকেটে যা ছিল বাংলাদেশের হয়ে যে কোন ব্যাটসম্যানের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় তহবিল গড়তে মুশফিকের ব্যাটের সঙ্গে নিলামে উঠেছিল অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী ক্যাপ্টেন আকবর আলীর ফাইনালের জার্সি আর ব্যাটিং গ্লাভস। তার দুটি আইটেম ২ হাজার ডলারে (এক লাখ ৭০ হাজার টাকায়) কিনে নিলেন রিয়াজুল ইসলাম নামের এক যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী।  আকবরের জার্সি ও গ্লাভসের ভিত্তি মূল্য ছিল এক লাখ টাকা।

যদিও নিলামে বিক্রি হয়নি মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও নাঈম শেখের ব্যাট। আসলে নিলামের ডাক তাদের ব্যাটের ভিত্তি মূল্যও ডাকেনি কেউ। যে ব্যাট দিয়ে গতবছর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ২৭ বলে ৫২ রানের ইনিংস খেলে দেশকে মোসাদ্দেক উপহার দেন  প্রথম আন্তর্জাতিক শিরোপা। সেই ব্যাটের ভিত্তি মূল্য ছিল তিন লাখ টাকা। ভারত সফরে টি-টোয়েন্টিতে যে ব্যাট দিয়ে ৮১ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন নাঈম। তার সেই ব্যাটের ভিত্তি মূল্য ছিল এক লাখ টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..