প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

দেড় লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৬ নাগরিক আটক

প্রতিনিধি, কক্সবাজার: সেন্টমার্টিন-সংলগ্ন সাগরে কোস্টগার্ড ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে এক লাখ ৭০

হাজার পিস ইয়াবার চালানসহ মিয়ানমারের ছয় নাগরিককে আটক করা হয়েছে। এ সময় একটি ইঞ্জিন বোট জব্দ করা হয়। 

আটকদের মধ্যে রয়েছেÑ মিয়ানমারের আকিয়াব জেলার ঘাটিয়াখালী থানার নাপং মাস্টার দিল মোহাম্মদ মাঝি এলাকার মৃত নুর আহমদের ছেলে কেফায়েত উল্লাহ (২২), ক্যাম্প পাড়ার তোবারক মাঝি এলাকার মৃত আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে মো. শরিফ (২৭),  মৃত হারেদের ছেলে ছৈয়দুর রহমান (৪৩), নুর কবিরের ছেলে নুর হোসেন (২১), মোহাম্মদ হোছন মাঝি এলাকার মিজ্জি-২ এর বাসিন্দা জালাল উদ্দিনের ছেলে মো. হোছন (৩৮) ও আলছান মাঝি এলাকার মৃত রশিদ আহমদের ছেলে মো. হোছন (২৭)।

গতকাল মঙ্গলবার বিকালে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের (বিসিজি) টেকনাফ স্টেশনের কর্মকর্তা লে. কমান্ডার আশিক আহমেদ।

তিনি বলেন, ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফের বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক মো. সিরাজুল মোস্তফাকে নিয়ে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিন এলাকায় মিয়ানমার থেকে আসা একটি ট্রলারকে থামার নির্দেশ দেয়া হয়। তবে ট্রলারের লোকজন অস্ত্র নিয়ে আক্রমণের চেষ্টা চালায়। এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যরা ফাঁকা গুলিবর্ষণ করলে বোটটি থামে। পরে বোটে তল্লাশি চালিয়ে একটি বস্তায় এক লাখ ৭০ হাজার পিস ইয়াবা মিলে।

তিনি আরও জানান, জব্দ হওয়া ইয়াবা, কাঠের বোটসহ আটক আসামিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়েরের পর টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে।