দিনের খবর

দেশে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী

শেয়ার বিজ ডেস্ক: সরকার নানাভাবে প্রচেষ্টা চালালেও কোনভাবেই রোধ করা যাচ্ছে না ডেঙ্গু, ক্রমান্বয়ে ধারণ করছে মহামারির আকার। ফলে দেশে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। গেল ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু-আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে পাঁচ শতাধিক মানুষ। তবে আতঙ্কিত না হয়ে সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

রাজধানীর উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন এলাকার ড্রেন ও নালায় উদ্বেগজনক ভাবেই জন্ম নিচ্ছে, বেড়ে উঠছে ডেঙ্গুবাহী এডিস মশা। যার প্রধান কারণ অপরিচ্ছন্নতা। এমন পরিস্থিতিতে স্বভাবতই ক্ষুব্ধ রাজধানীবাসী।

ঢাকা ও আশপাশের হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হচ্ছে প্রতিদিন গড়ে ৫ শতাধিক ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী। এদের মধ্যে অধিকাংশই শিশু। এমনই এক শিশু ১১ বছর বয়সী সামিউল। তাকে ভর্তি করা হয়েছে রাজধানীর ইউনিভার্সেল হসপিটালে। মা স্কুল শিক্ষিকা সামিনারা চৌধুরী আতঙ্কে আছেন একমাত্র সন্তানকে নিয়ে।

তিনি বলেন, ১৫ দিন আগে ৭ম শ্রেণির এক ছাত্র ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়, আমার নিজের হাতে ছেলেটা মারা গেল। সেই থেকেই ভয় ঢুকেছে, এখন ছেলেকে নিয়ে বেশ ভয়ে আছি। তাই এখন কোন এন্টিবায়োটিক ছাড়াই আমরা টেস্ট করাই, যে ডেঙ্গু ধরা পড়ে কিনা।

তিনি আরও বলেন, কত মায়ের কোল যে খালি হয়েছে এই ডেঙ্গুজ্বরে। তাইতো এখন ভয়ে ভয়েই থাকতে হচ্ছে।

এদিকে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ্ ইমার্জেন্সী অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, রাজধানী ও আশপাশের ৩৭টি হাসপাতালে মঙ্গলবার ভর্তি হয়েছে ৪৭৩ জন। যার ফলে এখন পর্যন্ত মোট ভর্তির সংখ্যা ১ হাজার ৮শ ২৩জন। আর গেল জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৭শ ৬৬ জনে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে মৃতের সংখ্যা ৫ জন, সুস্থ্যতার ছাড়পত্র পেয়েছে ৫৯৩৮ জন।

এ বিষয়ে চিকিৎসকরা বলছেন, অন্য সময়ের চেয়ে ভিন্ন লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে আসছেন রোগীরা। ইউনিভার্সেল মেডিকেল হাসপাতালের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সুলতানা রাজিয়া বলেন, অন্যান্য বারের তুলনায় এবছর রোগীরা ভিন্ন ভিন্ন উপসর্গ নিয়ে আসছে। যাতে দেখা যাচ্ছে, প্রায় সব অর্গানকেই আক্রান্ত করে ফেলছে।

তিনি আরও বলেন, এবার রোগীদের ডেঙ্গুর লক্ষণ ও ধরণটাও মারাত্মক।

এদিকে হেলথ্ ইমার্জেন্সী অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম-এর সহকারী পরিচালক ডাক্তার আয়শা আক্তার জানান, ডেঙ্গু বিষয়ে ডাক্তারদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে এবং আমাদের ওয়েবসাইটে ডেঙ্গু গাইডলাইন দেয়া আছে। এছাড়া এ বিষয়ে সবাইকে ট্রেনিংও দেয়া হয়েছে এবং এর সাথে তাদেরকে ডেঙ্গু গাইডলাইন সম্বলিত বইটিও সরবরাহ করেছি।
একইসঙ্গে বাড়ির আঙিনা পরিস্কার রাখা এবং অসুস্থ হলে বেশি করে পানি পানের পাশাপাশি ডাক্তারের পরামর্শ নেয়ার আহ্বান জানান স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

সর্বশেষ..