দিনের খবর শেষ পাতা

দেশে ৯ লাখ ৭৮ হাজার টিকা মজুত আছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৮৮ হাজার ১০৭ জন। আর প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন দুজন। তাদের কারও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (যেমন জ্বর, টিকা দেয়া স্থান লাল হওয়া প্রভৃতি) দেখা যায়নি। এ পর্যন্ত প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৫৮ লাখ ১৯ হাজার ৮৫৬ জন। আর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৩৪ লাখ এক হাজার ৫৩১ জন। প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন মোট ৯২ লাখ ২১ হাজার ৩৮৭ জন। মোট পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ৯৯৮ জনের।

টিকা মজুত আছে ৯ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৩ ডোজ।

গতকাল সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এমআইএস) অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রথম ডোজের মোট টিকা নিয়েছেন দুই নারী। আর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৮৮ হাজার ১০৭ জন। তাদের মধ্যে আছেন ৫৪ হাজার ৮৭২ পুরুষ এবং ৩৩ হাজার ২৩৫ নারী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৭ জানুয়ারি দেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রথম দিন টিকা দেয়া হয় ২৬ জনকে। আর গত ৭ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে টিকা কার্যক্রম শুরু হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত কভিড-১৯ দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি প্রস্তুতি ও জরুরি অক্সিজেন ব্যবস্থাপনা-বিষয়ক আলোচনা সভায় অনলাইনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে আমাদের তিন কোটি ডোজ ভ্যাকসিনের চুক্তি থাকলেও সে দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ হওয়ায় চুক্তি অনুযায়ী সব ভ্যাকসিন পাওয়া যাচ্ছে না। তবে ভ্যাকসিন নিতে রাশিয়ার সঙ্গে সরকারের কথা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। 

তিনি বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে শিগগির আমাদের চুক্তি হবে। পাশাপাশি চীন আগামী ১২ মের মধ্যে পাঁচ লাখ ভ্যাকসিন দিচ্ছে। চীন সরকারের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। শিগগির চীনের ভ্যাকসিন নিয়ে একটি সিদ্ধান্ত আসবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..