দেড় বছর পর খুললো ঢাবির গ্রন্থাগার

নিজস্ব প্রতিবেদক: দীর্ঘ দেড় বছর পর খুলেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরি। সেই সঙ্গে খুলছে ইনস্টিটিউট ও ডিপার্টমেন্টের সেমিনার কক্ষ। আজ রোববার সকালে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, অন্তত এক ডোজ করোনা টিকার প্রমাণপত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেখিয়ে গ্রন্থাগারে প্রবেশ করতে পারছেন শিক্ষার্থীরা। তবে গ্রন্থাগারে বাইরে থেকে কোনো বইপত্র নেওয়া যাচ্ছে না।

আজ থেকে সপ্তাহে পাঁচ দিন (রোববার-বৃহস্পতিবার) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার ও বিভাগ-ইনস্টিটিউটের সেমিনার গ্রন্থাগারগুলো খোলা থাকবে।

১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় সিদ্ধান্ত হয়, অন্তত এক ডোজ টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র থাকা সাপেক্ষে স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার ও সেমিনার গ্রন্থাগারগুলো সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। একই শর্তে এই দুই বর্ষের শিক্ষার্থীদের আগামী ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে হলে তোলা হবে।

তবে, লাইব্রেরিতে অনার্স ফাইনাল ইয়ার ও মাস্টার্স শিক্ষার্থীদের বাইরে অন্য ইয়ারের শিক্ষার্থীদের প্রবেশে বাধা দেয়ায় আজ লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষের সাথে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে তর্ক বাধতে দেখা গেছে। শেষ পর্যন্ত প্রক্টর এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের স্বার্থেই হল খুলেছি। বিশ্ববিদ্যালয় ৫ তারিখ খুলবে। আমরা তার আগেই লাইব্রেরি খুলে দিয়েছি। যাতে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করতে পারেন। আমাদের শিক্ষার্থীরা কোনো বিশৃঙ্খলা করবেন না এটাই আমাদের প্রত্যাশা। সবাই নিয়ম মেনে আইডি কার্ড দেখিয়ে স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে যথাসময়ে লাইব্রেরীতে প্রবেশ করবেন। এবং নির্দিষ্ট সময়ে লাইব্রেরি ত্যাগ করবেন।

সর্বশেষ..