প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে উত্তর কোরিয়া

শেয়ার বিজ ডেস্ক: কভিড-১৯-এর দৈনিক সংক্রমণে গত সোমবার বিশ্বে শীর্ষে ছিল উত্তর কোরিয়া। এদিন কভিডে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাজ্যে। খবর: রয়টার্স।

সোমবার বিশ্ব থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন উত্তর কোরিয়ায় কভিডে আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখ ৯২ হাজার ৯৩০ জন, মৃত্যু হয়েছে আটজনের। অন্যদিকে এদিন যুক্তরাজ্যে কভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন ১৭৬ জন, করোনা পজিটিভ হয়েছেন পাঁচ হাজার একজন।

এদিন বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সাত লাখ ২৯ হাজার ৪৩৭ জন এবং মারা গেছেন এক হাজার ১১২ জন। আক্রান্ত ও মৃত্যুহার আগের দিন রোববারের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি। রোববার এ সংখ্যা ছিল তিন লাখ ১৫ হাজার ৩৩০ এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছিল ৫৪৮ জনের।

তবে সোমবার বেড়েছে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যাও। এদিন বিশ্বজুড়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ছয় লাখ ৪৩৭ জন। আগের দিন রোববার এই সংখ্যা ছিল চার লাখ ১৯ হাজার ১৮৫। সোমবার সংক্রমণ ও মৃত্যুর উচ্চহার দেখা গেছে যুক্তরাষ্ট্রে, যেখানে নতুন আক্রান্ত রোগী ৬৪ হাজার ৪০০ জন, মৃত্যু হয়েছে ১০৭ জনের।

বিশ্বে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা দুই কোটি ৩৭ লাখ ১৭ হাজার ১৮০। এই রোগীদের মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন দুই কোটি ৩৬ লাখ ৭৮ হাজার ২৬ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৩৯ হাজার ১৫৪ জন।

উত্তর কোরিয়া প্রথমবারের মতো চলতি সপ্তাহে কভিড-১৯-এ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করার কথা জানায়। তবে এতদিন ধরে দেশটি দাবি করে আসছিল, সেখানে কোনো করোনা নেই। পরে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ গত শুক্রবার জানায়, করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথমবারের মতো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এদিকে দেশটির শীর্ষ নেতা কিম জং উন বলেন, কভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাব দেশকে ‘মহা অশান্তির’ মধ্যে ফেলে দিয়েছে। দেশটির কোনো নাগরিক করোনার টিকা নেননি। তা ছাড়া করোনা পরীক্ষা করার সক্ষমতাও কম।

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। তখন থেকেই উত্তর কোরিয়া বলে আসছিল, সেখানে করোনার অস্তিত্ব নেই।