প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

দৈনিক সংক্রমণ কমেছে মৃত্যু ১২০০

কভিড-১৯

শেয়ার বিজ ডেস্ক: কভিডে বৈশ্বিক মৃত্যু ও সংক্রমণের পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে গত শুক্রবার। আগের দিন বৃহস্পতিবারের তুলনায় সংক্রমণ কমেছে প্রায় পাঁচ লাখ। এ সময় মৃত্যু হ্রাস পেয়েছে এক হাজার দুইশর বেশি। খবর: এনডিটিভি।

মহামারি শুরুর পর থেকে এই রোগে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হালানাগাদ সংখ্যা প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার বিশ্বে করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১৬ লাখ ৪৩ হাজার ৭৮৭ জন এবং এই রোগে মারা গেছেন পাঁচ হাজার ২০ জন।

আগের দিন বৃহস্পতিবার করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা ছিল ২১ লাখ ১৬ হাজার ৯৩৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছিল ছয় হাজার ২৫৫ জনের। অর্থাৎ ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে বিশ্বজুড়ে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে চার লাখ ৭৩ হাজার ১৪৭ এবং মৃতের সংখ্যা কমেছে এক হাজার ২৩৫।

দৈনিক সংক্রমণে শুক্রবার শীর্ষে ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। এদিন দেশটিতে করোনা পজিটিভ হয়েছেন চার লাখ সাত হাজার ১৭ জন এবং আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩০১ জন।

এ সময় করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ৭২১ জন। দেশটিতে শুক্রবার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ হাজার ২৩৬ জন।

শুক্রবার যে দেশগুলোয় সংক্রমণ ও মৃত্যুর উচ্চহার দেখা গেছে, সেগুলোর মধ্যে জার্মানিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৮৪ হাজার ৫০ জন, মারা গেছেন ২১৭ জন; ফ্রান্সে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৭ হাজার ৭৭৯ জন, মারা গেছেন ১১২ জন; যুক্তরাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ হাজার ৩৫০ জন, মারা গেছেন ১২৫ জন; ইতালিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৬ হাজার ২৫০ জন, মারা গেছেন ১৬৫ জন; ব্রাজিলে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ হাজার ৪৫৭ জন, মারা গেছেন ৩৮০ জন এবং রাশিয়ায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৪৪২ জন, মারা গেছেন ৫২৪ জন।

এছাড়া শুক্রবার বিশ্বজুড়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২ লাখ ২২ হাজার ৬১৯ জন।

বিশ্বে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা মোট ছয় কোটি ২৫ লাখ ৯৩ হাজার ৯৬৬ জন। এই রোগীদের মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ছয় কোটি ২৫ লাখ ৩১ হাজার ২১১ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৬২ হাজার ৭৫৫ জন।