কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

নগদ লভ্যাংশ দেবে ইবনে সিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা করেছে দি ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, ৩০ জুন ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি ৩৮ দশমিক ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ৪৩ পয়সা এবং ৩০ জুন ২০২০ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ৫৬ টাকা ৭৪ পয়সা। আর এই হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১৪ টাকা আট পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ১২ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় অনলাইনে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১২ অক্টোবর।

গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই দশমিক ৮৫ শতাংশ বা ৭ টাকা ২০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ২৪৫ টাকা ১০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ২৪৫ টাকা ৩০ পয়সা। ওইদিন এক কোটি ৯৮ লাখ ৫০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দিনজুড়ে ৮০ হাজার ১৯১টি শেয়ার মোট ৬৪৬ বার হাতবদল হয়। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ২৪৩ টাকা ৫০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ২৫৫ টাকায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ১৯২ টাকা থেকে ২৮০ টাকায় ওঠানামা করে।

এর আগে ৩০ জুন ২০১৯ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী কোম্পানিটি ৩০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল। আলোচিত সময়ে ইপিএস হয়েছিল ১০ টাকা ৭৬ পয়সা, আর শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য হয়েছিল ৪৭ টাকা ৩২ পয়সা।

১৯৮৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হচ্ছে। ৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৩১ কোটি ২৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ১১৬ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট তিন কোটি ১২ লাখ ৪৩ হাজার ৬২৮ শেয়ার রয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..