কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

নগদ লভ্যাংশ দেবে প্রাইম ফাইন্যান্স

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা করেছে প্রাইম ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্যমতে, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য কোম্পানিটি উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ব্যতীত শুধু সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য দুই শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা করেছে। উল্লেখ্য যে, কোম্পানিটির উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে ১৬ কোটি ১৪ লাখ ১৪ হাজার ১১৯টি শেয়ার রয়েছে অন্যদিকে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা দুই কোটি ২৩ লাখ ৪৭৩ টাকা নগদ লভ্যাংশ হিসেবে পাবেন।

আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৯ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে আট টাকা ৯৪ পয়সা। আর এ হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে দুই পয়সা, যা তার আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে ২২ পয়সা, আট টাকা ৭৫ পয়সা ও দুই টাকা ৭১ পয়সা (লোকসান)। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ২৬ নভেম্বর বেলা সাড়ে ১০টায় অনলাইনে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২২ অক্টোবর।

এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর শূন্য দশমিক ৮৪ শতাংশ বা ১০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১২ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১২ টাকা ২০ পয়সা। ওইদিন ৬৪ লাখ ৬১ হাজার ৫২৯টি শেয়ার মোট এক হাজার ৩০১ বার হাতবদল হয় যার বাজারদর সাত কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১২ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১২ টাকা ৮০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর পাঁচ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ১২ টাকা ৮০ পয়সায় ওঠানামা করে।

২০০৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘জেড’ ক্যাটেগরিতে কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হচ্ছে। ৩০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২৭২ কোটি ৯১ লাখ ৬০ হাজার টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..