প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে একমি ল্যাবরেটরিজ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিনিয়োগকারীদের ব্যাংক হিসাবে নগদ লভ্যাংশ পাঠিয়েছে তালিকাভুক্ত ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানি দি একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ বাংলাদেশ ইলেকট্রনিক ফান্ডস ট্রান্সফার নেটওয়ার্কের (বিইএফটিএন) মাধ্যমে গত ৫ ডিসেম্বর বিনিয়োগকারীদের ব্যাংক হিসাবে পাঠিয়েছে কোম্পানিটি।

উল্লেখ্য, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সমাপ্ত হিসাববছরের  নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের ৩৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে একমি। এসময় কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ছয় টাকা ৫৫ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) ছিল  ৭৭ টাকা ৩৪ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে পাঁচ টাকা ৭০ পয়সা ও ৭০ টাকা ৩৭ পয়সা। ওই বছর কর-পরবর্তী মুনাফা করেছিল ১১০ কোটি ১২ লাখ ৭০ হাজার টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৯২ কোটি ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকা। গতকাল কোম্পানিটির পাঁচ কোটি ৪২ লাখ ৯৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দিনজুড়ে পাঁচ লাখ ৩০ হাজার ৬৮৩টি শেয়ার এক হাজার ৩০৫ বার হাতবদল হয়। শেয়ারদর আগের কার্যদিবসের চেয়ে শূন্য দশমিক ৮৯ শতাংশ বা ৯০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১০২ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১০২ টাকা ২০ পয়সা। শেয়ারদর সর্বনিম্ন ১০১ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১০৩ টাকা ৪০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর ৯৬ টাকা ২০ পয়সা থেকে ১৩৫ টাকার মধ্যে ওঠানামা করে। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) ইপিএস হয়েছে এক টাকা ৭৯ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল এক টাকা ৪৩ পয়সা। অর্থাৎ ইপিএস বেড়েছে ৩৬ পয়সা।