বিশ্ব সংবাদ

নতুন দল গঠনের পরিকল্পনা ট্রাম্পের

শেয়ার বিজ ডেস্ক : নির্বাচনে পরাজয়ের পর যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবার নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের পরিকল্পনা করছেন। যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে দুই দলের বাইরে তৃতীয় দল গড়ার প্রচেষ্টা আগেও হয়েছে। বর্তমানের ভিন্ন প্রেক্ষাপটে ট্রাম্প এমন নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করবেন বলে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ট্রাম্পের রাজনৈতিক দলের নামে প্যাট্রিয়টিক পার্টি (দেশপ্রেমিক দল) হতে পারে বলেও জানা গেছে।

১৯ জানুয়ারি রাতে হোয়াইট হাউস থেকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদায়ের কয়েক ঘণ্টা আগে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল তাদের অনলাইনে এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনে বলে হয়েছে, এখনও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না ট্রাম্প এমন রাজনৈতিক দল গঠনের কথা কতটা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছেন। তিনি নিজে এমন কোনো ঘোষণা করেননি।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্প রাজনৈতিক দল গঠনের ধারণা নিয়ে ঘনিষ্ঠ জনদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। ৬ জানুয়ারি ট্রাম্পের আহ্বানে ওয়াশিংটন ডিসিতে জড়ো হওয়া সমর্থকদের তাণ্ডবের পর রিপাবলিকান দলের মূল নেতাদের সঙ্গে ট্রাম্পের দূরত্ব স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। তাকে দ্বিতীয় দফা কংগ্রেসে অভিশংসন প্রস্তাবের পক্ষেও ১০ রিপাবলিকান আইনপ্রণেতা ভোট দিয়েছেন।

সর্বশেষ রিপাবলিকান দলের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও সিনেটে দলের নেতা মিচ ম্যাককনেল বলেছেন, ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে তাণ্ডবের জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ অন্যদের উসকানিমূলক বক্তৃতা ভূমিকা রেখেছে। রিপাবলিকান দলের বহু নেতা ট্রাম্পকে দলের জন্য রাজনৈতিক বোঝা হিসেবে মনে করছেন এখন, যদিও যুক্তরাষ্ট্রের জেগে ওঠা রক্ষণশীলদের মধ্যে ট্রাম্প এখনও জনপ্রিয়। তার এসব অন্ধ সমর্থকদের সমর্থন রিপাবলিকানদের পক্ষে ভবিষ্যতে কীভাবে থাকবে, এ নিয়ে নতুন করে হিসাব করা হচ্ছে। ট্রাম্পের অন্ধ সমর্থকরা রিপাবলিকান দলের সঙ্গে এখন আর প্রতিশ্রুতিশীল নন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে তৃতীয় দল গড়ে তোলার প্রচেষ্টা আগেও হয়েছে। এখন ইতিহাসের সবচেয়ে বিভক্ত যুক্তরাষ্ট্রের সমাজে ডোনাল্ড ট্রাম্প তার অতি রক্ষণশীল এজেন্ডাগুলো নিয়ে রাজনীতিতে আলাদা দল গঠন করলে তাকে রিপাবলিকান দলের কিছু নেতাকেও দলে নিতে হবে।

ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার পর ডোনাল্ড ট্রাম্পের তৎপরতা ও যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক গতি-প্রকৃতিই বলে দেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প নতুন দল করবেন কি না। রিপাবলিকান দলের মধ্যে থেকেই রক্ষণশীল কোনো প্ল্যাটফর্মও গঠন করতে পারেন তিনি। বিদায়ী বক্তব্যে ট্রাম্প বলেছেন, ‘মেক আমেরিকা গ্রেট’ আন্দোলন কেবল শুরু হয়েছে। এ আন্দোলন চালিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..