স্পোর্টস

নতুন নির্বাচক রাজ্জাক চান সততার সঙ্গে কাজ করতে

ক্রীড়া ডেস্ক: এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে খেলোয়াড়ি জীবনকে বিদায় বলেননি আব্দুর রাজ্জাক। তবে তার আগেই জাতীয় দলের সাবেক কিংবদন্তি স্পিনার পেয়েছেন জাতীয় দলের নির্বাচকের দায়িত্ব। এতদিন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর সাথে দায়িত্ব পালন করছিলেন হাবিবুল বাশার। সাবেক দুই অধিনায়কের সাথে এবার নির্বাচক প্যানেলে যুক্ত হয়েছেন আরেক সাবেক তারকা- আব্দুর রাজ্জাক। বৃহস্পতিবার নির্বাচক প্যানেলের নতুন ও তৃতীয় সদস্য হিসেবে তার নাম জানায় বিসিবি। এ সুখবর শোনার পর তিনি জানিয়েছেন, আমার উদ্দেশ্য একটাই থাকবে- সততার সাথে যেন কাজ করতে পারি।

এতদিন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর সাথে দায়িত্ব পালন করছিলেন হাবিবুল বাশার। সাবেক দুই অধিনায়কের সাথে এবার নির্বাচক প্যানেলে যুক্ত হয়েছেন আরেক সাবেক তারকা- আব্দুর রাজ্জাক। বৃহস্পতিবার নির্বাচক প্যানেলের নতুন ও তৃতীয় সদস্য হিসেবে তার নাম জানায় বিসিবি।

জাতীয় দলের নির্বাচকের দায়িত্বটা বেশ ভারি। ঘরোয়া ক্রিকেটে, তথা দেশের শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটের সব খেলায়ই নজর রাখতে হয়। তাদের হাত ধরেই উঠে আসেন খেলোয়াড়রা, গড়ে উঠে জাতীয় দল। রাজ্জাক জানেন তার এই দায়িত্বের মর্ম, ‘এটা অনেক বড় একটা দায়িত্ব। ক্রিকেটের জন্য কিছু করার অনেক বড় প্লাটফর্ম। প্রথমত ক্রিকেট বোর্ডকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাকে বেছে নেওয়ার জন্য। তারপর বলব, ক্রিকেটের সাথে থাকতে পারাটাই আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। সবসময় চেয়েছি খেলা ছাড়ার পর যেন ক্রিকেটের সাথেই থাকি।’

অন্য দুই নির্বাচকের মত সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে চান রাজ্জাক। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমার যতটুকু যা অভিজ্ঞতা হয়েছে আমি যেন তা সবার মধ্যে বিলিয়ে দিতে পারি। আমার উদ্দেশ্য একটাই থাকবে- সততার সাথে যেন কাজ করতে পারি। যারা এতদিন ধরে এই কাজ করছেন তারা সেটাই করছেন। এমনভাবে কাজ করতে চাই যাতে বাংলাদেশের ক্রিকেট, বাংলাদেশ উপকৃত হয়।’

দল বাছাইয়ের মূল কাজটা নির্বাচকরাই করেন, তাই খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স পরখ করতে হয় আতশি কাঁচ দিয়ে। রাজ্জাক জানান, খেলা দেখে ক্রিকেটারদের যাচাই করতে যথাসম্ভব চেষ্টা করবেন,‘না দেখে তো আমি বুঝতে পারব না। না দেখলে জানব না কী হচ্ছে, কী চলছে। চেষ্টা থাকবে যত বেশি সম্ভব খেলা দেখা, বর্তমান পরিস্থিতি দেখে কাজগুলো করা।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..