প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

নভেম্বরে উৎপাদনে আসবে বড় পুকুরিয়ার তৃতীয় ইউনিট

শেয়ার বিজ প্রতিনিধি, দিনাজপুর: বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের তৃতীয় ইউনিট থেকে নভেম্বরের মধ্যে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ আসবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

গতকাল শুক্রবার দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রটি ‘২৭৫ মেগাওয়াট কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের (তৃতীয় ইউনিট) কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

নসরুল হামিদ বলেন, ‘দেশীয় কয়লা থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎকেন্দ্রটিতে পরিবেশ সংরক্ষণের বিষয়টিতে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এখন সময় এসেছে, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কয়লা উত্তোলন ও এর বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিত করা। এ বছরের নভেম্বর নাগাদ ২৭৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে উৎপাদিত হবে। ২০১৯ সাল থেকে কয়লা থেকে আরও বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে।’

ইসিএ ফাইন্যান্সিংয়ে প্রায় ২৭০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৭৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পটিতে বার্ষিক ছয় লাখ ৪২ হাজার টন কয়লা লাগবে। এ কেন্দ্রের চিমনির উচ্চতা ২২০ মিটার।

পরে প্রতিমন্ত্রী বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়নাধীন ‘ফিজিবিলিটি স্টাডি ফর ডেভলপমেন্ট অব দীঘিপাড়া কোল ফিল্ড’ প্রকল্পটির বাস্তবায়ন ও অগ্রগতি পরিদর্শন করেন।