নাঈম ঝলকে প্রিমিয়ার লিগে টিকে গেল রূপগঞ্জ


ক্রীড়া ডেস্ক: গত আসরের রানার্সআপ দল। কিন্তু সেই দলটিই এবার পড়েছিল প্রিমিয়ার লিগে টিকে থাকার শঙ্কায়।   শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার নাঈম ইসলামের দাপুটে ব্যাটিংয়ে ভর করে লিজেন্ডস অব রূপগগঞ্জ শঙ্কা উড়িয়ে টিকে গেল এ টুর্নামেন্টে।
ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে তলানির লড়াইয়ে ওল্ড ডিওএইচএসকে ৬ উইকেটে হারিয়ে প্রিমিয়ারে টিকে রইল রূপগঞ্জ। আগেই রেলিগেশন নিশ্চিত হয়ে যাওয়া পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে প্রথম বিভাগে নেমে গেল ওল্ড ডিওএইচএস।
মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ওল্ড ডিওএইচএসের ইনিংসে কয়েক দফায় বৃষ্টি বাধা পড়ার পর ম্যাচ নেমে আসে ১৮ ওভারে। আনিসুল ইসলাম ইমনের দারুণ ফিফটির পরও তারা করতে পারে কেবল ১১৭ রান।
রূপগঞ্জের রান তাড়ায় কয়েক দফার অনিশ্চয়তা শেষে নাঈম ঝলকে জিতে যায় ৫ বল বাকি রেখে।
শেষ দিকে যখন ১৬ বলে প্রয়োজন ২২ রান, ওল্ড ডিওএইচএসের সেরা বোলার আব্দুর রশিদের পরপর দুই বলে ছক্কা ও চারে সমীকরণ সহজ করে দেন নাঈম। পরের ওভারে আরেকটি বাউন্ডারি মারেন আলিস আল ইসলামকে। শেষ ওভারের প্রথম বলে আসাদুজ্জামান পায়েলের বলে বাউন্ডারি মেরে দলকে জেতান তিনি।
বল হাতে ২ উইকেট আর ১৪ বলে ২৭ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচের সেরা নাঈমই।
মঙ্গলবার রান তাড়ায় বেশ এগোচ্ছিল রূপগঞ্জ।তৃতীয় উইকেটে সাব্বির-মারুফের জুটিতেই জয়ের দিকে এগোচ্ছিল রূপগঞ্জ। ৩০ বলে যখন প্রয়োজন ৩৩ রান, উইকেট বাকি তখন ৮টি। আব্দুর রশিদের পরপর দুই বলে উইকেট ছুঁড়ে দেন দুজনই।
২২ বলে ৩০ করে মেহেদি মারুফ আউট হন পুল শটে। পরের বলে সাব্বির ৩১ বলে ৩০ করে ক্যাচ দেন কাভারে। ওই ওভারে রশিদ দেন মাত্র ৩ রান। এই পেসারের বোলিং বিশ্লেষণ তখন ৩-০-৯-৩! আরও কয়েকটি ডট বলে জমে ওঠে নাটকীয়তা। কিন্তু নাঈম হয়ে ওঠেন নায়ক।
ম্যাচের প্রথম ভাগে কেবল আনিসুল ইসলাম ইমন ছাড়া ভালো করতে পারেননি ওল্ড ডিওএইচএসের কেউ। আনিসুল খেলেন ৩৯ বলে ৫১ রানের ইনিংস।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ওল্ড ডিওএইচএস: ১৮ ওভারে ১১৭/৬ (আনিসুল ৫১, রাকিন ২, মাহমুদুল ২০, রায়ান ১২, মোহাইমিনুল ১, প্রিতম ০, আলিস ২০*, রাকিবুল ০*; শহিদ ২-০-২২-০, নাবিল ৪-০-১৫-১, সানজামুল ৪-০-১৫-০, মুক্তার ৩-০-২৪-০, আলি হোসেন ৩-০-২৩-৩, নাঈম ২-০-১২-২)।।
রূপগঞ্জ: (লক্ষ্য ১৮ ওভারে ১২২) ১৭.১ ওভারে ১২৪/৪ (আজমির ২০, জাকের ৮, সাব্বির ৩০, মারুফ ৩০, আল আমিন ৭*, নাঈম ২৭*; রকিবুল ৩-০-২৫-০, শান্ত ২-০-২১-০, রশিদ ৪-০-২২-৩, পায়েল ৩.১-০-১৯-১, আলিস ৪-০-২৩-০, আনিসুল ১-০-১৪-০)।
ফল: লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ৬ উইকেটে জয়ী।
ম্যাচসেরা: নাঈম ইসলাম।


সর্বশেষ..