প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

নাপোলির কোচ হচ্ছেন ম্যারাডোনা!

ক্রীড়া ডেস্ক: আবারও কোচের ভূমিকায় দেখা যেতে পারে আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে। তবে আকাশি-নীলদের নয়, সাবেক ক্লাব নাপোলিতে যোগ দিতে পারেন তিনি। ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন ম্যারাডোনার এজেন্ট সেফানো সেসি। এরপর থেকে পুরো ফুটবল বিশ্ব উৎসুক হয়ে উঠেছে। প্রশ্ন একটাইÑকোথায় নাম লেখাবেন ফুটবল ঈশ্বর!

ম্যারাডোনার প্রতিনিধি সেফানো সেসি ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সাবেক নাপোলির আইকন এবার কোচ হিসেবে যোগদানের জন্য আলোচনা করছেন। তার বিশ্বাস, নাপোলির জন্য ম্যারাডোনাই যোগ্য। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ক্লাবটির কোচ হিসেবে ম্যারাডোনাই যোগ্য। নাপোলির প্রতি তার ভালোবাসা অপরিসীম। বিশেষ করে ক্লাব সমর্থকদের প্রতি রয়েছে এই আর্জেন্টাইনের সীমাহীন ভালোবাসা।’

নাপোলির হয়ে সাত বছর খেলেছিলেন ম্যারাডোনা। ক্লাবটির হয়ে তিনবার সিরি আ, উয়েফা কাপ, কোপা ইতালিয়া, সুপার কোপা ইতালিয়ানা জিতেছেন আর্জেন্টিনার এই কিংবদন্তি ফুটবলার। এবার কোচ হয়ে আসার খবরে নাপোলির ফুটবলারদের মধ্যে সাড়া পড়েছে। এমনিতেই দীর্ঘদিন ধরে কোচের চাকরি খুঁজছেন মেসিদের সাবেক কোচ। তাই নাপোলির এই খবরে উচ্ছ্বসিত হওয়ার কথা তারও।

ফুটবল বিশ্বের এক সময়ের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ম্যারাডোনা। জাতীয় ও ক্লাব ফুটবলে সমানভাবে সফল ছিলেন তিনি। ১৯৮৬ সালে একাই আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছিলেন সাবেক এই ফুটবল জাদুকর।

তবে কোচ হিসেবে এর উল্টো তিনি। ২০১০ বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট হিসেবে বিবেচিত হলেও আর্জেন্টিনাকে বিদায় নিতে হয়েছিল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে। জার্মানির কাছে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে হারের পর নিজে থেকেই কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। এরপর আরব আমিরাতের ক্লাব আল ওয়াসলেরও কোচ হয়েছিলেন ম্যারাডোনা। কিন্তু সেখানেও ব্যর্থ। ১২ দলের প্রতিযোগিতায় আল ওয়াসল লিগ শেষ করেছিল অষ্টম দল হিসেবে। যে কারণে কোচের পদ থেকে ম্যারাডোনাকে বহিষ্কার করে ক্লাবটি।