বাণিজ্য সংবাদ

নারী উদ্যোক্তাদের অগ্রাধিকারভিত্তিতে প্লট বরাদ্দ দেওয়া হবে: শিল্পমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: জেলা পর্যায়ে স্থাপিত বিসিক শিল্পনগরীগুলোতে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য অগ্রাধিকারভিত্তিতে প্লট বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ উইমেন চেম্বারের সুপারিশের ভিত্তিতে শিল্প মন্ত্রণালয় এ প্লট বরাদ্দ দেবে। এর পাশাপাশি নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রয়ের জন্য রাজধানীর পূর্বাচলে কেন্দ্রীয়ভাবে একটি ‘প্রোডাক্ট ডিসপ্লে অ্যান্ড সেলস সেন্টার’ স্থাপন করা হবে।
গতকাল বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (বিডব্লিউসিসিআই) আয়োজিত ‘বিডব্লিউসিসিআই প্রগ্রেসিভ অ্যাওয়ার্ড ২০১৭-১৮’ প্রদান অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী এ কথা বলেন। রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সের সম্মেলন কক্ষে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।
বিডব্লিউসিসিআই’র প্রেসিডেন্ট সেলিমা আহমাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসএম মনিরুজ্জামান, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী রেজা ইফতেখার ও অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠানে নারী উদ্যোক্তারা এসএমই ফাউন্ডেশন আয়োজিত বিভিন্ন মেলায় তাদের জন্য বিনা মূল্যে স্টল বরাদ্দ প্রদানের দাবি জানান। এর পাশাপাশি চলতি অর্থবছরের বাজেটে বরাদ্দকৃত ১০০ কোটি টাকা স্টার্টআপ ফান্ড থেকে তরুণ নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে ঋণ বিতরণ, গ্রামপর্যায়ে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য প্রশিক্ষণ সুবিধা সম্প্রসারণ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী এসএমই নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বন্ধকী বিহীন ঋণ প্রদানে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, টেকসই শিল্পায়নের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্য অর্জনে শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করে যাচ্ছে। বিশেষ করে তৃণমূল পর্যায়ে নারী উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিসিক ও এসএমই ফাউন্ডেশন বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। জেলা পর্যায়ে নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাতকরণে প্রয়োজনীয় বিপণন অবকাঠামো গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক বিসিক শিল্পনগরীতে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য পৃথক কর্নার স্থাপন করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী ১০ জনের হাতে ‘বিডব্লিউসিসিআই প্রগ্রেসিভ অ্যাওয়ার্ড ২০১৭-১৮’ তুলে দেন।
অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তরা হলেন ঢাকা বিভাগে রেহানা আক্তার, রাজশাহী বিভাগে মালা সরকার, রংপুর বিভাগে মোছাম্মদ জান্নাতুস সাফা শাহীনুর, সিলেট বিভাগে সোহানা রহমান চৌধুরী, খুলনা বিভাগে নুরজাহান খানম, চট্টগ্রাম বিভাগে নয়ন সেলিনা, ময়মনসিংহ বিভাগে মোছা. সাঈদা আক্তার এবং বরিশাল বিভাগে তাহমিনা মোর্শেদ ইরানি পুরস্কৃত হন। এছাড়া ইলেকট্রনিক মিডিয়ার ক্যাটেগরিতে সময় টেলিভিশনের ইমতিয়াজ আহমেদ সোহেল এবং প্রিন্ট মিডিয়া ক্যাটেগরিতে প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার মানসুরা হোসাইন পুরস্কৃত হন।

সর্বশেষ..