প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

নিজেদের রফতানি আয় বাড়াতে টাকার অবমূল্যায়ন চায় বিজিএমইএ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিজেদের রফতানি আয় বাড়াতে টাকার অবমূল্যায়নের প্রস্তাব করেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিএমইএ)

গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এ দাবি জানান বিজিএমইএ’র নেতারা। সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মো. রাজি হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্যমান কমানো হলে রফতানি আয় অনেক বেড়ে যাবেÑএ যুক্তি দেখিয়ে টাকার অবমূল্যায়নের প্রস্তাব করেন বিজিএমইএ নেতারা।

এছাড়া পোশাকশিল্পে রফতানি আয়ের ওপর সরকারের দেওয়া নগদ সহায়তা পাওয়ার ক্ষেত্রে অডিট আপত্তি শিথিল করা; নগদ সহায়তা পাওয়ার ক্ষেত্রে বিদ্যমান নীতিমালায় দুটি শব্দ (‘স্বীয়’ প্রতিষ্ঠানের পরিবর্তে ‘দেশীয়’ প্রতিষ্ঠান এবং ‘বস্ত্র’ মূল্যের পরিবর্তে ‘এফওবি’ মূল্য) প্রতিস্থাপনের দাবি জানান তারা।

বিজিএমইএ নেতাদের এসব দাবির পরিপ্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রী তেমন কোনো মন্তব্য করেননি বলে বৈঠক সূত্র জানায়।

বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘বস্ত্র খাতে নগদ সহায়তার ১০ কোটি টাকার একটি তহবিল ছাড় হওয়ার কথা থাকলেও তা বিলম্বিত হচ্ছে, সেটি দ্রুত ছাড়ের অনুরোধ জানানো হয়েছে। এছাড়া নগদ অর্থসংক্রান্ত নীতিমালায় কিছু ভুল শব্দ থাকায় অডিট ফার্মগুলো অডিটে ছাড়পত্র দিচ্ছে না। তাই এ শব্দগুলো পরিবর্তনের দাবি নিয়ে তারা অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন।’

‘অর্থমন্ত্রী এ বিষয়গুলো সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন’ বলে জানান তিনি।