মত-বিশ্লেষণ

নিজে আক্রান্ত মনে হলে কী করবেন?

নভেল করোনাভাইরাসজনিত মহামারি কভিডের কারণে এখন কারও জ্বর এবং সঙ্গে শুকনো কাশি অথবা শরীর ব্যথার মতো এক-দুটি উপসর্গ ও লক্ষণ দেখা দিলেই স্বাভাবিকভাবেই মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। আর সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে রোগীর উপচে পড়া ভিড় এবং সেবা না পাওয়া নিয়ে নানা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অনেকেই চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হাসপাতালে যাবেন কি না, তা নিয়ে সংশয়ে আছেন। যদি বুঝতে পারেন যে, আপনার মধ্যে কভিড সংক্রমণের একাধিক লক্ষণ দেখা যাচ্ছে, তাহলে কী করবেন?

বিষয়টি নিয়ে বিবিসি রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সাবেরা গুলনাহার, ঢাকার বক্ষব্যাধি হাসপাতালের চিকিৎসক কাজি সাইফুদ্দিন বেন্নুর এবং সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক তাহমিনা শিরিনের সঙ্গে কথা বলেছে। তাদের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে কিছু পরামর্শÑ

শুরুতেই আলাদা হয়ে যান: কভিডের সংক্রমণের প্রথম লক্ষণ হলো জ্বর ও শুকনো কাশি। এছাড়া থাকতে পারে শরীরের পেশিতে ব্যথা, গলাব্যথা, স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতি না থাকা, শ্বাসকষ্ট, কখনও পেট খারাপ ও বমি বা বমি বমি ভাব।

চিকিৎসকরা মনে করেন, কেউ যদি নিজের মধ্যে এরকম একাধিক লক্ষণ দেখতে পান, তাহলে শুরুতেই ‘সেলফ-আইসোলেশনে’ চলে যান অর্থাৎ নিজেকে পরিবারের বাকি সদস্যদের কাছ থেকে পুরোপুরি আলাদা করে ফেলুন। এতে পরিবার, কর্মস্থল এবং আশপাশের মানুষের মধ্যে ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া ঠেকানো যাবে।

সম্ভব হলে আলাদা একটি ঘরে থাকুন, যেখানে  প্রাতঃকর্ম এবং অন্যান্য কাজের জন্য বাইরে বের হতে না হয়। খাবার এবং অন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও ওষুধ ঘরের দরজার বাইরে রেখে যাবেন পরিবারের সদস্যরা। এ ব্যবস্থা করা সম্ভব না হলে অন্যদের থেকে অন্তত ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন এবং মাস্ক পরুন।

নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে: যদিও চিকিৎসকরা বলছেন, এখন সাধারণভাবে জ্বরের সঙ্গে আরও এক বা একাধিক উপসর্গ দেখা গেলে কভিড-১৯ ধরে নিয়েই ব্যবস্থা নিতে হবে অর্থাৎ নমুনা পরীক্ষা এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। সরকারি এবং বেসরকারি উভয় খাতে নমুনা পরীক্ষা করানো যায়। বাংলাদেশে এই মুহূর্তে ৬২টি সরকারি পরীক্ষাগারে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তার মধ্যে ৩২টি ঢাকায়। সে ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া হটলাইন নম্বরে ফোন দিয়ে অথবা স্থানীয় সিভিল সার্জন কিংবা সিটি করপোরেশনে যোগাযোগ করতে হবে। [সূত্র: বিবিসি বাংলা]

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..