নিষেধাজ্ঞা শেষ রাত ১২টার পর ইলিশ ধরা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম শেষে আজ (২৫ অক্টোবর) রাত ১২টার পর থেকে আবার নদীতে মাছ ধরবেন জেলেরা। গত ৪ অক্টোবর থেকে আজ পর্যন্ত সারাদেশের নদীগুলোয় চলে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম। নিষেধাজ্ঞার এ সময় সারাদেশে এক হাজার ৮৯২টি মোবাইল কোর্ট ও ১৫ হাজার ৩৮৮টি অভিযান পরিচালনা এবং ৮৮৪ লাখ মিটার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়েছে।

এদিকে ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের কাছে ইলিশের স্বাদ পৌঁছে দিতে চান বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

গতকাল রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে ‘মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান, ২০২১’ বাস্তবায়ন-সংক্রান্ত মূল্যায়ন এবং ভবিষ্যৎ করণীয় বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা জানান।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অন্যান্য বছরের চেয়ে এবার ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা চাই আগামীতে ইলিশ উৎপাদন আরাও বৃদ্ধি পাবে। ইলিশের উৎপাদন এমন একটা জায়গায় আসুক যাতে গ্রামগঞ্জে ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের সব মানুষ সুস্বাদু ইলিশের স্বাদ নিতে পারেন। পরিপূর্ণতার সঙ্গে পরিবার-পরিজন নিয়ে ইলিশ খেতে পারেন।’

মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে এ বছর যারা ভূমিকা রেখেছেন, তাদের মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রী।

মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, সুবোল বোস মনি, মো. তৌফিকুল আরিফ ও এস এম ফেরদৌস আলমসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

কর্মশালায় দেশের আট বিভাগের বিভাগীয় মৎস্য দপ্তরের উপপরিচালরা সংশ্লিষ্ট বিভাগের মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানের কার্যক্রম তুলে ধরেন। কর্মশালায় জানানো হয় এ বছর মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানের অংশ হিসেবে ৪ থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত এক হাজার ৮৯২টি মোবাইল কোর্ট ও ১৫ হাজার ৩৮৮টি অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং প্রায় ৮৮৪ লাখ মিটার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৯  জন  

সর্বশেষ..