বাণিজ্য সংবাদ শিল্প-বাণিজ্য

নীতিমালা ঢেলে সাজানোর পরামর্শ শিল্প প্রতিমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশীয় শিল্পের অনুকূলে আমদানি-রপ্তানি নীতি, ব্যাংকিং নীতি ও শিল্প নীতিকে ঢেলে সাজানোর পরামর্শ দিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার। পাশাপাশি, ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্পের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত প্রণোদনার অর্থ দ্রুত বিতরণের জন্য ব্যাংকগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী।

গতকাল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘শিল্পোন্নত বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্প প্রতিমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) আয়োজিত এ আলোচনা সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বিসিআইসির চেয়ারম্যান মো. মোস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

অলোচনা সভায় দেশীয় শিল্পের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে করকাঠামো তৈরির আহ্বান জানিয়ে শিল্প প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে যেসব শিল্পপণ্য উৎপাদিত হচ্ছে, সেগুলো আমদানির ক্ষেত্রে কর বাড়াতে হবে এবং দেশীয় পণ্যের রপ্তানি উৎসাহিত করতে দেশীয় উদ্যোক্তাদের বিশেষ প্রণোদনা দিতে হবে। তিনি বিসিক ও এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের ঋণ সহায়তা নিশ্চিত এবং বিটাকের মাধ্যমে এসব উদ্যোক্তাদের দক্ষতা উন্নয়ন কার্যক্রম জোরদার করা আহ্বান জানান। শিল্প প্রতিমন্ত্রী এ সময় খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণে ব্যাংকগুলোকে আরও তৎপর হবার আহ্বান জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের সর্বত্র স্থানীয় কাঁচামালভিত্তিক শিল্পকারখানা স্থাপনের লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে। যে সব জমিতে ফসল হয় না সেখানে জমি অধিগ্রহণের মাধ্যমে পর্যাপ্ত অবকাঠামো উন্নয়ন করে শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে। তিনি বলেন, ১৯৫৬ সালে কোয়ালশিন সরকারের শিল্পমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনকালে এ অঞ্চলের শিল্প খাতের বিকাশে বঙ্গবন্ধু ইপসিক গঠন করেন, যা স্বাধীনতা উত্তরকালে বিসিক হিসেবে শিল্প খাতের উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..