শোবিজ

নুসরাত ইমরোজ তিশার জন্মদিন আজ

শোবিজ ডেস্ক: অভিনেত্রী ও মডেল নুসরাত ইমরোজ তিশা সবার কাছে একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। অসাধারণ অভিনয়দক্ষতায় দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছেন। আজ তার জন্মদিন। ১৯৮২ সালের এ দিনে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। শুভ জন্মদিন তিশা। জন্মদিনে শেয়ার বিজের পক্ষ  থেকে শুভেচ্ছা। ১৯৮২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীতে জš§গ্রহণ করেন। রাজশাহীতে জš§গ্রহণ করলেও তিনি বেড়ে উঠেছেন ঢাকায়। ১৯৯৫ সালে ‘নতুন কুঁড়ি’ প্রতিযোগিতায় প্রথম হন। টিভি নাটকের মাধ্যমে তার অভিনয় জীবন শুরু। তবে গান দিয়েই শুরু হয়েছিল তার পথচলা। তিনিসহ রুমানা, নাফিজা ও কণা এ চারজন গঠন করেন ব্যান্ড দল অ্যাঞ্জেল ফোর। যদিও সে ব্যান্ড দলটি বেশিদূর এগোতে পারেনি। ১৯৯৭ সালে অনন্ত হীরার লেখা ও আহসান হাবীবের প্রযোজনায় ‘সাতপেড়ে কাব্য’ নামের নাটকে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় শুরু করেন। ১৯৯৮ সালে ‘সাত প্রহরের কাব্য’ নাটক দিয়ে টেলিভিশন পর্দায় অভিষেক হয়। নাটকটি রচনা করেন অনন্ত হীরা আর পরিচালনা করেন আহসান হাবীব। এরপর আর তাকে পেছনের দিকে তাকাতে হয়নি। একের পর এক অনেক জনপ্রিয় নাটক দর্শককে উপহার দিয়েছেন। উল্লেখযোগ্য নাটক নুরুল হুদা একদা ভালোবেসেছিল,  অরন্যে জ্যোৎস্না,  লাইফ, পূর্ণ দৈর্ঘ্য, এলোমেলো মন,  মুনিরা মফস্বলে, ঈদের টিকেট, আরমান ভাই, আরমান ভাই কয়া পারছে,  আরমান ভাই ফাইস্যা গেছে, আরমান ভাই বিরাট টেনশনে,  আরমান ভাই দি জেন্টেলম্যান, আরমান ভাই হানিমুনে, মিথ্যুক। তিনি সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন। সিনেমায়ও দর্শকের বেশ প্রশংসা পেয়েছেন। ২০১৬ সালে তার অভিনীত দুটি বাণিজ্যিক সিনেমা মুক্তি পায় ‘অস্তিত্ব’ ও ‘ওয়েটিং রুম’। অস্তিত্ব সিনেমায় তিনি একজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীর চরিত্রে অভিনয় করেন। অনন্য মামুন পরিচালিত এ সিনেমায় তার বিপরীতে ছিলেন আরিফিন শুভ। এ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ৪১তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১৭ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’ সিনেমায় একজন স্বনামধন্য পরিচালকের কন্যা চরিত্রে অভিনয় করে বেশ প্রশংসিত হন। এতে তার বাবার চরিত্রে অভিনয় করেন ইরফান খান। একই বছর তিনি ‘হালদা নদী’ নিয়ে সচেতনতামূলক হালদা সিনেমায় হাসু চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা অর্জন করেন। ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’, ‘টেলিভিশন’সহ আরও বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেন। তিনি মেরিল লিপজেলের বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের মাধ্যমে মডেল হিসেবে যাত্রা করেন। এরপর একে একে কোকা-কোলা, সিটিসেল আর কেয়া সাবানের বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেন। মুঠোফোন রবি আজিয়াটা লিমিটেডের শুভেচ্ছাদূত হন। তার অভিনয় দক্ষতার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ মেরিল-প্রথম আলো, চ্যানেল আই, এনটিভি ও আরটিভি স্টার পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১০ সালে তিনি টিভি ও চলচ্চিত্র পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..