স্পোর্টস

নেতৃত্ব হারালেন সরফরাজ

ক্রীড়া ডেস্ক: বেশ আগে থেকেই সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্ব নিয়ে অসন্তোষ জানিয়ে আসছিলেন অনেকে। তারা চেয়েছিলেন দ্রুতই তাকে সরিয়ে নতুন কারও এ পদে বসাতে। শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) গতকাল সে পথেই হেঁটেছে। চ্যাম্পিয়ন ট্রফি জেতানো এ তারকাকে সরিয়ে টেস্টে আজহার ও টি-টোয়েন্টিতে বারব আজমকে অধিনায়কের দায়িত্ব দিয়েছে সংস্থাটি।

পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্বে আজহার থাকবেন ২০১৯-২০২০ সালের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ শেষ হওয়া পর্যন্ত। এদিকে আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাবর আজম থাকবেন দেশটির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ক্রিকেটের নেতৃত্বে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আগামী ২৫ নভেম্বর ব্রিসবেন টেস্টে মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। এ ম্যাচ দিয়েই আজহার আলীর নেতৃত্বে দলটি শুরু করবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পথচলা। এরপর দু’দলের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট মাঠে গড়াবে ২৯ নভেম্বর অ্যাডিলেডে।

এর আগে আগামী ৩, ৫ ও ৮ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান। যে সিরিজের মধ্যে দিয়ে এ ফরম্যাটে দেশটির অধিনায়ক হিসেবে পথচলা শুরু করবেন বাবর আজম। 

নতুন দায়িত্ব পাওয়ায় আজহার ও বাবরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড চেয়ারম্যান এহসান মানি, ‘আমি আজহার ও বাবরকে অভিনন্দন জানায় নতুন দায়িত্ব পাওয়ায়। তারা কিন্তু এ দায়িত্ব নিজের মেধা ও গুণ দিয়েই অর্জন করে নিয়েছেন। আমি আশা করব তারা তাদের বুদ্ধি ও পারফরম্যান্সের মাধ্যমে দেশকে অনেক সাফল্য এনে দেবে।’

টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি থেকে বাদ পড়লেও আপাতত ওয়ানডে অধিনায়ক থাকছেন সরফরাজই। এ নিয়ে পিসিবি অবশ্য এখনও তেমন কিছু বলেনি, ‘গেল কয়েকটি সিরিজে সরফরাজের পারফরম্যান্সের সামগ্রিক অবনতি ঘটেছে। এতে তার আত্মবিশ্বাসেও চিড় ধরেছে। ফলে তার পরিবর্তে নতুন নেতা বেছে নিয়েছে পিসিবি। তবে ওয়ানডে ফরম্যাটের জন্য কোনো অধিনায়কের নাম এখনও ঘোষণা করেনি তারা। আগামী বছর জুলাইয়ের আগে পাকিস্তানের কোনো ওয়ানডে ম্যাচ নেই। সে কারণে এ ফরম্যাটের দলনেতা নির্বাচন করতে আরও সময় নেবে দেশটির বোর্ড।’

সর্বশেষ..