প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

নেপালে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প

A file photo shows Nepalese carrying their remaining belongings while evacuating Chautara village, Sindhupalchwok district, a day after a powerful earthquake struck Nepal, 13 May 2015. EPA-EFE/FILE/NARENDRA SHRESTHA

শেয়ার বিজ ডেস্ক: নেপালে রিখটার স্কেলে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার বেলা ২টা ২৮ মিনিটের দিকে দেশটি কেঁপে ওঠে। খবর: এনডিটিভি।

নেপালে আঘাত হানা এ ভূমিকম্পে কেঁপেছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিও। ইউরোপীয়-ভূমধ্যসাগরীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র (ইএমএসসি) জানিয়েছে, নেপালে যে ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে তার মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৪। তবে ভারতের জাতীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র (এনসিএস) জানিয়েছে, গতকাল দুপুরে ৫ দশমিক ৮ মাত্রায় ভূমিকম্পে কেঁপেছে নেপাল। এর শক্তিশালী কম্পন অনুভূত হয়েছে দিল্লি ও এর আশপাশের এলাকায়।

ইএমএসসি জানিয়েছে, নেপালে আঘাত হানা ভূমিকম্পের উৎপত্তি হয়েছে দেশটির উত্তর-পশ্চিমের জুলমা জেলায়। রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ৩০০ কিলোমিটারের বেশি দূরের জুলমা থেকে প্রায় ৬৩ কিলোমিটার দূরে ১০ কিলোমিটার ভূগর্ভে এর উৎপত্তি। ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের পিথোরাগর এলাকা থেকে ১৪৮ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত এ জেলা।

ভূমিকম্পে উভয় দেশে কোনো হতাহত হয়েছে কি না তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি। তবে ভারতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীরা শক্তিশালী কম্পন অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছেন। তারা ভূমিকম্পের সময় মোবাইল ফোনে ধারণ করা বাসাবাড়ির ফ্যান ও অন্যান্য বস্তুর কয়েক সেকেন্ড ধরে কেঁপে ওঠার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন।

এর আগে গত বছরের নভেম্বরে একটি ভূমিকম্পে কেঁপে উঠে নেপালের পশ্চিমাঞ্চল। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৬। তখনও কম্পন অনুভূত হয় ভারতের উত্তরাঞ্চলে। যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা-ইউএসজিএস জানায়, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল নেপালের দিপায়ল শহরের কাছে ভূপৃষ্ঠ থেকে ১৫ কিলোমিটার গভীরে। রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে ৩৪০ কিলোমিটার পশ্চিমে অবস্থিত দিপায়ল শহর। এ ভূমিকম্পে ঘরবাড়ি ধসে কমপক্ষে ছয়জনের মৃত্যু হয়।

নেপালে এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প হয় ২০১৫ সালের ২৫ এপ্রিল। সে দিনের ভূমিকম্পে ৮ হাজার দুইশর বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়।