Print Date & Time : 24 January 2021 Sunday 2:57 am

নোয়াখালীতে বিয়ের পরদিন যুবকের আত্মহত্যা

প্রকাশ: October 27, 2020 সময়- 01:10 am

প্রতিনিধি, নোয়াখালী: মেহেদি রাঙা হাত নিয়ে বিয়ের পরদিনই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর সুলতান মাহমুদ বাদশা (২৫) নামে এক যুবক। গত রোববার রাত ৯টার দিকে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে সকাল ৯টায় উপজেলার বারগাঁও ইউনিয়নের ভাভিয়াপাড়া ওমর আলী হাজী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, এক দিন আগে ওমর আলী হাজী বাড়ির নিজাম উদ্দিনের ছেলে সুলতান মাহমুদ বাদশার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের সুরত ভূঁইয়া বাড়ির মোহাম্মদ হানিফের মেয়ে পুষ্প আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। গত রোববার সকালে বড় বোন লিজা আক্তার বড় ভাই এবং ভাবির জন্য নাশতা নিয়ে যায়। এ সময় ভাইকে রুমে না পেয়ে সে এদিক-ওদিক খুঁজতে থাকে।

পরে পার্শ্ববর্তী রুমের দরজা বন্ধ থাকায় একাধিকবার দরজা খুলতে বলে সে। দীর্ঘক্ষণ পরেও দরজা না খোলায় সবার মধ্যে সন্দেহ জাগে। পরে দরজা ভেঙে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না প্যাঁচানো বাদশার মরদেহ ঝুলে থাকতে দেখে সবাই চিৎকার শুরু করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

নিহত বাদশার বাবা নিজাম উদ্দিন জানান, তার একমাত্র ছেলে বাদশা কী কারণে আত্মহত্যা করেছে, তার কোনো কারণ তিনি জানেন না। জানার আগ্রহ নেই বলেও জানান তিনি।

সোনাইমুড়ী থানার ওসি মো. গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।