প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ন্যাটোয় যোগ দিচ্ছে ফিনল্যান্ড

শেয়ার বিজ ডেস্ক: নিরপেক্ষ অবস্থান ত্যাগ করে পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোয় যোগ দিতে যাচ্ছে ফিনল্যান্ড। আগামী বুধবার (১৮ মে) ন্যাটোয় যোগদানের জন্য আবেদন করতে পারে দেশটি। খবর: তাস।

ফিনল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেক্কা হাভিস্তোর বরাত দিয়ে রুশ বার্তা সংস্থা তাস জানায়, ন্যাটোয় স্থায়ী প্রতিনিধি হতে বুধবার আবেদন করবে ফিনল্যান্ড। ন্যাটোর সঙ্গে আলোচনা শুরু হলে দেশটির প্রতিনিধিদল তা দেখভাল করবে বলে জানান তিনি।

আজ ফিনল্যান্ডের সংসদ ন্যাটোয় যোগ দেয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করবে। গত ১২ মে দেশটির রাষ্ট্রপতি সাউলি নিনিসটো ও প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ফিনল্যান্ডের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ন্যাটোর সদস্য হওয়ার জন্য আবেদন করা উচিত। তবে কয়েক দিন আগেও ফিনল্যান্ডের সাধারণ মানুষের মধ্যে ন্যাটোয় যোগ দেয়া নিয়ে আগ্রহ ছিল না। জানুয়ারিতেও প্রধানমন্ত্রী জানান, বর্তমান সরকারের আমলে ন্যাটোয় যোগদানের আবেদন করতে চায় না তার দেশ। তবে ইউক্রেনে রুশ হামলা শুরুর পর দেশটির বেশিরভাগ মানুষ ন্যাটোয় যোগ দেয়ার পক্ষে মতামত দিয়েছেন। যুদ্ধ শুরুর আগে ফিনল্যান্ডের ৫৩ শতাংশ মানুষ ন্যাটোয় যোগ দেয়ার পক্ষে ছিলেন, যা বেড়ে হয়েছে ৬৮ শতাংশ। বদলে গেছে প্রধানমন্ত্রীর অবস্থানও, এখন তিনি ন্যাটোয় যোগ দিতে চান।

ন্যাটোয় আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ না দিলেও দীর্ঘদিন ধরে জোটটির সঙ্গে কাজ করছে ফিনল্যান্ড। আফগানিস্তানে ন্যাটোর নেতৃত্বাধীন অভিযানে অংশ নিয়েছিলেন দেশটির সেনাসদস্যরা। দেশটি সামরিক সরঞ্জাম ও প্রশিক্ষণের বিষয়ে ২০১৫ সাল থেকে ন্যাটোর প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্র যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।

এদিকে ন্যাটোয় যোগ দেয়া নিয়ে ফিনল্যান্ডকে সতর্ক করেছে রাশিয়া। গত শনিবার ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। এ সময় তিনি বলেন, ন্যাটোয় যোগ দিলে

ফিনল্যান্ড বড় ‘ভুল করবে’। যদিও ফিনল্যান্ডের নিরাপত্তার ওপর কোনো হুমকি নেই বলে আশ্বস্ত করেন পুতিন। দুই দেশের মধ্যে দীর্ঘ এক হাজার ৩০০ কিলোমিটার (৮১০ মাইল) সীমান্ত রয়েছে। ন্যাটো জোটের সদস্য হতে চায় ইউরোপের আরেক দেশ সুইডেনও।