প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

পদ্মার তীর ধসে হুমকিতে রাজবাড়ী শহররক্ষা বাঁধ

 

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: রাজবাড়ী জেলা সদরের মিজানপুর ইউনিয়নের বলতা সুইচ গেট এলাকায় পদ্মার তীররক্ষা বাঁধ এলাকার প্রায় ৩ একর জমি ধসে শহররক্ষা বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। এ সময় নদী ভাঙন ঠেকাতে ব্যবহৃত হাজার হাজার সিসি ব্লকও নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। শুক্রবার সকালে এ ধসের ঘটনা ঘটে। শহররক্ষা বাঁধের নিচ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণেই এমন ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি স্থানীয়দের। খবর বাংলা ট্রিবিউন।

স্থানীয়রা জানান, বালুদস্যুরা রাজবাড়ী শহররক্ষা বাঁধের পাশ থেকে বালু উত্তোলন করে তা নদী পাড়ে মজুদ করছে। এ কারণে শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে সুইচ গেট সংলগ্ন বলতা বাইনুর জামে সমজিদের সামনে অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা কয়েক লাখ টন বালুসহ প্রায় তিন একর জমি পদ্মার গর্ভে ধসে যায়। এ সময় স্থানীয়দের মধ্যে ভীতির সৃষ্টি হলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। যে কোনো সময় শহররক্ষা বাঁধ ভেঙে রাজবাড়ী জেলা ডুবে যেতে পারে।

স্থানীয় লক্ষ্মীকোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সেলিম জানান, অনেক বছর ধরেই প্রভাবশালীরা উড়াকান্দা থেকে গোদার বাজার ঘাটের আশপাশে প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকা থেকে বালি উত্তোলন করে আসছে। স্থানীয়দের পক্ষ থেকে প্রশাসনের বিভিন্ন মহলে একাধিকবার জানিয়ে কোনো সুরাহা হয়নি। স্থানীয় বরু বেগম জানান, ছোটবেলা থেকেই নদী পাড়ের মানুষ তারা। কিন্তু আজ বড় অসহায় হয়ে পড়েছেন বালু দস্যুদের কাছে। তাদের নিষেধ করলে প্রাণনাশের হুমকি দেয়।

বরাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান সালাম জানান, নদী তীর থেকে বালি উত্তোলন করে মজুদের ফলে প্রায় ৩ একর জমি ধসে সিসি ব্লক নদী গর্ভে চলে গেছে। প্রশাসন যদি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করে রাজবাড়ী শহর তলিয়ে যাবে। রাজবাড়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী গৌরপদ সূত্রধর জানান, নদীর তীর থেকে বালি উত্তোলনের ফলে এমন ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।