প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

পদ্মা ইসলামী লাইফ: আর্থিক প্রতিবেদনে হিসাবমান লঙ্ঘনের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের প্রতিষ্ঠান পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড কোম্পানির সমাপ্ত হিসাব বছরের আর্থিক প্রতিবেদনে হিসাবমান বা বাংলাদেশ অ্যাকাউন্টিং স্ট্যান্ডার্ডস (ব্যাস) লঙ্ঘন করেছে। আর্থিক প্রতিবেদন মূল্যায়ন করে এমন তথ্য জানিয়েছে কোম্পানিটির নিরীক্ষক প্রতিষ্ঠান।

নিরীক্ষক প্রতিষ্ঠানের মতে, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫ সালের সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদনে পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড টাওয়ারের জমি ও ভবনের

মূল্য এক সঙ্গে স্থায়ী সম্পদ হিসেবে দেখিয়েছে। আর এতে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ অ্যাকাউন্টিং স্ট্যান্ডার্ডস (ব্যাস) ১৬-এর প্যারা ৫৮ লঙ্ঘন করেছে। হিসাব মান অনুযায়ী, জমি ও

বিল্ডিংয়ের মূল্য আলাদাভাবে  দেখানো উচিত। এক সঙ্গে দেখানোর কারণে কোম্পানির লাইফ ইন্স্যুরেন্স ফান্ড এক কোটি ৪৫ লাখ ৮০ হাজার ৮৩৯ টাকা অস্পষ্ট রয়ে গেছে।

এদিকে প্রতিষ্ঠানটি ২০১৩ সালে ছয় কোটি ৩০ লাখ ২৬ হাজার ৩৭ টাকা এবং ২০১৪ সালে চার কোটি ৭২ লাখ ৫৫ হাজার ১৭৩ টাকা অগ্রিম হিসেবে উল্লেখ করেছে। এছাড়া পদ্মা লাইফ টাওয়ারের সপ্তম ও অষ্টমতলা স্থায়ী সম্পদ। এর হিসাবও আগাম দেখানো হয়েছে। এতে কোম্পানিটি ব্যাস-১৬ লঙ্ঘন করেছে। এ কারণে কোম্পানির লাইফ ইন্স্যুরেন্স ফান্ড ৮৫ লাখ সাত হাজার ৭৯৭ টাকা অবচয় হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

নিরীক্ষক প্রতিষ্ঠান আরও জানায়, কোম্পানিটি ২০১৪ সালে চাঁদপুর শাখার  ফ্লোর স্পেসের জন্য ৪৪ লাখ ৩৮ হাজার টাকা অগ্রিম দেখিয়েছে। এর ফলে কোম্পানির লাইফ ইন্স্যুরেন্স ফান্ডে দুই লাখ ২১ হাজার ৯০০ টাকা অবচয় দেখানো হয়েছে। আলোচিত ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ অ্যাকাউন্ট স্ট্যান্ডার্ড লঙ্ঘন করেছে বলে জানিয়েছে নিরীক্ষক প্রতিষ্ঠান।

পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড ২০১২ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ওই বছর আট শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দেয় তারা। পরবর্তীতে গত সমাপ্ত বছর পর্যন্ত কোম্পানি লভ্যাংশ দেওয়ার কোনো নজির নেই। এ কারণে কোম্পানিটি ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে অবস্থান করছে। কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা এবং পরিশোধিত মূলধন ৩২ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

কোম্পানিটির মোট শেয়ারের মধ্যে পরিচালকদের কাছে ৫৭ দশমিক ৫৪ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর কাছে ১২ দশমিক ১১ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে ৩০ দশমিক ৩৫ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

লেনদেন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গত ৪ ডিসেম্বর কোম্পানিটির শেয়ারদর ছিল ২৪ টাকা ১০ পয়সা। গতকাল তাদের শেয়ার সর্বশেষ ২৮ টাকায় বেচাকেনা হয়েছে। আলোচিত সময়ে কোম্পানির শেয়ারদর বেশ ওঠানামা করতে দেখা গেছে।