সুস্বাস্থ্য

পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে স্কাউটস ও রেকিট বেনকিজার

পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে ও দেশব্যাপী জনসাধারণকে পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সচেতন করতে একযোগে কাজ করবে বাংলাদেশ স্কাউটস ও রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ। সম্প্রতি রাজধানীর কাকরাইলের স্কাউটস ভবনে প্রতিষ্ঠান দুটি ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ ক্যাম্পেইনের অধীনে কাজ করার বিষয়ে একাত্মতা প্রকাশ করে।
পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে একযোগে কাজ করার প্রত্যয়ে এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্টে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ স্কাউটসের পক্ষে ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) আরশাদুল মুকাদ্দিস ও রেকিট বেনকিজারের বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার জেনারেল ম্যানেজার ভিশাল গুপ্তা।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ স্কাউটসের জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) শাহ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দুর্নীতি দমন কমশিনের (দুদক) কমিশনার (অনুসন্ধান) ও বাংলাদেশ স্কাউটসের প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান। আরও উপস্থিত ছিলেন রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেডের মার্কেটিং ডিরেক্টর সৈয়দ তানজিম রেজওয়ান, ডেটল পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের দূত চিত্রনায়ক রিয়াজ, ক্যাম্পেইনের জনসংযোগ সহযোগী প্রতিষ্ঠান কনসিটো পিআরের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা (সিওও) মানজেনো রায়হান খানসহ প্রতিষ্ঠানগুলোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিচ্ছন্নতা ছোট কোনো বিষয় নয়। এ বিষয়ে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। আমরা সবাই মিলে কাজ করলে অনেক বড় সাফল্য আসবে। আমাদের স্বাস্থ্য ও পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সমস্যা দূর হবে। আমরা একটি সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ পাব।
শাহ কামাল বলেন, ক্লিন সিটি, ক্লিন বাংলাদেশ নামে বাংলাদেশ স্কাউটসের একটি প্রোগ্রাম আছে। আমাদের চিন্তা ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ ক্যাম্পেইনের চিন্তার মধ্যে যথেষ্ট মিল রয়েছে। সবাই মিলে একসঙ্গে কাজ করতে পারলে আমাদের চিন্তার বাস্তবায়ন ঘটবে। শহর থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যন্ত এই কার্যক্রম ছড়িয়ে দিতে চাই।
আরশাদুল মুকাদ্দিস বলেন, আমরা বাংলাদেশ স্কাউটসের ১৭ লাখ সদস্য নিয়ে রেকিট বেনকিজারের সঙ্গে পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পেইনে কাজ করতে চাই। আশ করি, একটি পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে পারব।
তানজিম রেজওয়ান বলেন, পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ আমাদের সবার চাওয়া। রেকিট বেনকিজারের পক্ষ থেকে গত দুই বছর ধরে পরিচ্ছন্নতাবিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টিতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ডেটল ও হারপিক ব্র্যান্ডের আওতায় দেশব্যাপী ব্যক্তিপর্যায়ে ও পারিপার্শ্বিক পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করে চলেছি। পরিচ্ছন্নতাবিষয়ক সচেতনতা বোধ সৃষ্টিতে বাংলাদেশ স্কাউটস কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করায় আমরা সত্যিই আনন্দিত ও গর্বিত। আমরা বিশ্বাস করি, সবাইকে উদ্বুদ্ধকরণ ও সচেতনতার মাধ্যমে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ শিগগির বাস্তবে রূপ নেবে।
উল্লেখ্য, দেশের সর্বস্তরের মানুষকে সুস্বাস্থ্য ও পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সচেতন করতে দেশব্যাপী ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয়েছে ‘ডেটল পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ পাওয়ার্ড বাই হারপিক’ ক্যাম্পেইন। এর অধীনে সরাসরি প্রশিক্ষণের পাশাপাশি গণমাধ্যম দ্বারাও জনগণকে সচেতন করা হচ্ছে।
পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুন: ভধপবনড়ড়শ.পড়স/ চড়ৎরপযপযড়হহড়ইধহমষধফবংয। ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ রেকিট বেনকিজারের একটি সামাজিক উদ্যোগ।

সর্বশেষ..