Print Date & Time : 20 October 2020 Tuesday 5:45 pm

পরিপূর্ণ হাইজিন অভ্যাস গড়ে তুলতে করণীয়

প্রকাশ: August 7, 2020 সময়- 12:46 am

মোহাম্মদ জিয়ান চমৎকার কাজ করছে। রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরগুলোয় পরিবার, বন্ধু ও কমিউনিটিতে হাত ধোয়া ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কিত জ্ঞান বিনিময়ের জন্য যে এক হাজার ৬০৩ শিশুকে (৭৭৯ মেয়ে ও ৮২৪ ছেলে) ইউনিসেফের অংশীদাররা তৈরি করেছে, সে তাদের একজন।

কমিউনিটিতে সচেতনতা বৃদ্ধি ও পরিপূর্ণ হাইজিন অভ্যাস গড়ে তুলতে নিজেদের উদ্যোগী হওয়ার জন্য প্রতিটি শিশু ১০ জন মানুষের কাছে গুরুত্বপূর্ণ বার্তাগুলো পৌঁছে দিচ্ছে।

কভিড-১৯ কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়, তা নিয়ে শিক্ষকদের একটি প্রশ্নের জবাবে জিয়ানের প্রবল উৎসাহের প্রতিফলন ঘটে। সে এমন আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে জবাব দেয় যে তার বয়স যে মাত্র ১২ বছর তা মানতে কষ্ট হয়।

জিয়ানের অভিজ্ঞতা হলো অন্য রকম। সে বলে, ‘করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি কাজ করতে হবে। আমাদের ঘনঘন সাবান ও হ্যান্ড রাব দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত পরিষ্কার করতে হবে।’

‘আমি আপনাদের দেখাচ্ছি ১, ২, ৩,’ বলে যথাযথভাবে হাত ধোয়ার পদ্ধতি দেখানোর পাশাপাশি ২০ পর্যন্ত গণনা করে সে।

‘দ্বিতীয়ত, হাঁচি-কাশি দেওয়ার সময় মুখ ঢাকতে হবে আমাদের, কিংবা টিস্যু ব্যবহার করতে হবে। টিস্যু না থাকলে পরে আপনার হাত ধুয়ে নিতে হবে এবং তৃতীয়ত, আমাদের একে অপরের কাছ থেকে অন্তত তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে, যেমনটি এখন আমি আপনাদের দেখাচ্ছি,’ বলে হাত প্রসারিত করে প্রয়োজনীয় ন্যূনতম দূরত্ব ইঙ্গিত করে সে।

মোহাম্মদ জিয়ান বলে, ‘প্রতিটি ব্লকের শিশুরা এখানে শিখতে আসে। আমাদের বন্ধু তৈরিরও একটা সুযোগ হয়েছে এখানে। আমাদের শিক্ষকরা সত্যিই আমাদের ভালোবাসেন এবং আমরা এখানে আনন্দ পাই।’

ইউনিসেফের তথ্য অবলম্বনে