বিশ্ব সংবাদ

পশ্চিমবঙ্গে ‘নো এনআরসি’ আন্দোলনের ডাক মমতার

শেয়ার বিজ ডেস্ক  : ভারতের সদ্য পাস হওয়া নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএবি) ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল শুক্রবার দিঘায় সংবাদ সম্মেলন করে আগামীকাল রোববার ও সোমবার ‘নো এনআরসি’ আন্দোলনের কর্মসূচির কথা জানিয়েছেন তিনি। তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, এ রাজ্যে এনআরসি হবে না। কাউকে কেউ তাড়াতে পারবে না। খবর: এনডিটিভি।

গত বৃহস্পতিবার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোয় ব্যাপক বিক্ষোভের মধ্যেই বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি), ২০১৯-এ সম্মতি দেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। পার্লামেন্টের দুই কক্ষের অনুমোদনের পর বৃহস্পতিবার রাতে ওই বিলে সম্মতি দিলে তা আইনে পরিণত হয়। এরই মধ্যে গেজেট আকারে আইনটি কার্যকর করা হয়েছে।

পরদিনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা, রোববার ১৫ ডিসেম্বর রাজ্যজুড়ে ‘নো এনআরসি’ আন্দোলন হবে। সব জেলায় মিছিল করবেন দলের কর্মীরা। পরদিন ১৬ ডিসেম্বর কলকাতায় জমায়েত করবে তৃণমূল। তৃণমূলনেত্রী মমতা বলেন, ‘গণতান্ত্রিকভাবে প্রতিবাদ করুন। আমি নিজেও সেইসব আন্দোলনে যোগ দেব। গায়ের জোরে সিএবি পাস করেছে। কিন্তু বাংলায় এনআরসি করতে দেব না। প্রত্যেক রাজ্যের আলাদা আবেগ আছে, আলাদ বিষয় আছে।’

চলতি বছরের ৩১ আগস্ট অনলাইন ও এনআরসি সেবাকেন্দ্রে প্রকাশিত হয় আসামের এনআরসি। এ থেকে বাদ পড়েছেন রাজ্যের প্রায় ১৯ লাখ ছয় হাজার ৬৫৭ মানুষ। সম্প্রতি ঝাড়খন্ডের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে বাহরাগোড়ায় এক জনসভায় দেওয়া ভাষণে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, ‘আজ আমি আপনাদের বলতে চাই, ২০২৪ সালের নির্বাচনের আগেই এনআরসি সারা দেশে প্রয়োগ করা হবে এবং প্রত্যেকে অনুপ্রবেশকারীকে চিহ্নিত করে এ দেশ থেকে বহিষ্কার করা হবে।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..