প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

পাঁচ ছাত্রকে এক দিনে দুই ডোজ টিকা দেয়ার অভিযোগ

প্রতিনিধি, লালমনিরহাট: লালমনিরহাট সদর উপজেলার পাঁচজন ছাত্রকে একই দিনে দুই ডোজ কভিডের টিকা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার জেলা শহরের অডিটরিয়ামে শিক্ষার্থীদের জন্য করা ক্যাম্পেইনে কুলাঘাটের দুই মাদরাসার পাঁচ শিক্ষার্থীকে দুই হাতে টিকা দেয়া হয়। সন্ধ্যার পরে অসুস্থতা বোধ করলে সিভিল সার্জনের পরামর্শে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের চিকিৎসা দেন। ওই পাঁচ শিক্ষার্থীর মধ্যে তিনজন কুলাঘাট হাফিজিয়া মাদরাসার এবং দুজন দাখিল মাদরাসায় পড়েন।

শিক্ষার্থী খোরশেদ আলম জানান, ভ্যাকসিন নেয়ার পরে জুব্বা গায়ে দিচ্ছি। এমন সময় একজন ম্যাম এসে বলেন ভ্যাকসিন দাও। আমরা বললাম, এ হাতে দিয়েছে। অন্য হাতেও কি দিতে হবে। তখন ওই ম্যাম দ্রুত আমাদের ভ্যাকসিন দেন।

স্থানীয় হাসান বলেন, আমার পাড়া প্রতিবেশী। তারা অসুস্থতা বোধ করলে, আমি সিভিল সার্জনকে ফোন করি। তিনি হাসপাতালে ভর্তি করাতে বলেন। সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তারা ব্যবস্থাপত্র দিয়ে ছেড়ে দেন। দায়িত্বরত ডাক্তার বলেন, এদের এখানে রাখা যাবে না।

সদর হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আব্দুল বাসেদ বলেন, এমন খবর আমার জানা নেই। এখন মাসিক সমন্নয় সভায় আছি।

সদর হাসপাতালের সদ্য সাবেক তত্ত্বাবধায়ক ডা. সিরাজুল ইসলাম বলেন, এমন তো হওয়ার কথা নয়! যারা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে, তাদের ট্রেনিং করানো হয়েছে। এমন ভুলে সম্ভবত রোগীর তেমন ক্ষতি হবে না। তবে যারা ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করছেন, তারা বিষয়টি ভালো বলতে পারবেন। ভ্যাকসিনের সব দায়িত্ব সিভিল সার্জনের।

সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায়ের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি। দুই ডোজ টিকার ঘটনা ঘটেনি।