Print Date & Time : 28 October 2020 Wednesday 11:08 am

পাকিস্তানে ক্রিকেট ম্যাচে সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি গুলি

প্রকাশ: August 8, 2020 সময়- 01:42 am

শেয়ার বিজ ডেস্ক : পাকিস্তানে আবারও সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে ক্রিকেট। একটি আঞ্চলিক টুর্নামেন্টের ফাইনাল পণ্ড হয়ে গেছে প্রবল গোলাগুলিতে। খাইবারপাখতুন খাওয়া প্রদেশের কোহাত বিভাগের ওরাকজাই জেলার দ্রাদার মামাজাই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সেখানে একটি টুর্নামেন্টের ফাইনাল ছিল বৃহস্পতিবার। এ ঘটনায় হতাহতের খবর অবশ্য পাওয়া যায়নি। দ্য নিউজ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, ম্যাচ দেখতে বিপুলসংখ্যক দর্শক, অনেক রাজনৈতিক কর্মী ও সংবাদকর্মী ছিলেন মাঠে। জামায়েত উলামায়ে-ই-ইসলামের স্থানীয় এক নেতা ছিলেন প্রধান অতিথি। খেলা শুরু হতে না হতেই কাছেই এক পাহাড় থেকে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু হয়। ক্রিকেটার, দর্শক সবাই দ্রুত পালিয়ে নিজেদের রক্ষা করেন।

ওরাকজাই জেলার পুলিশ কর্মকর্তা নিসার আহমেদ খান জানিয়েছেন, ওই এলাকায় সন্ত্রাসীদের উপস্থিতির খবর তাদের কাছে আছে এবং শিগগিরই কয়েকটি নিরাপত্তা বাহিনীর যৌথ অভিযান ওই অঞ্চলে শুরু হবে।

যে কোনো জায়গায়ই এমন ঘটনা শঙ্কা বাড়িয়ে তুলবে, তবে পাকিস্তান ক্রিকেটে ঘটেছে বলেই ঘটনাটা বেশি আলোচনার খোরাক জোগাচ্ছে। সন্ত্রাসীদের কারণে পাকিস্তান ক্রিকেট তো কম ভোগেনি! ২০০৯ সালে জয়াবর্ধনে-সাঙ্গাকারাদের বহনকারী শ্রীলঙ্কার বাসে সন্ত্রাসী হামলার জের এখনও বয়ে নিয়ে চলেছে পাকিস্তানের ক্রিকেট। প্রায় ১০ বছর নিজভূমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ বলতে গেলে পানইনি পাকিস্তানের মানুষ। পাকিস্তান সে সময়টাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ‘ঘর’ বানিয়ে সেখানেই খেলেছে সব ‘হোম’ সিরিজ। ২০১১ বিশ্বকাপ বাংলাদেশ-ভারত-শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথ আয়োজনের স্বত্বও এ কারণে হারায় পাকিস্তান।

গত দু’বছরে যদিও পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। বেশ কিছু দেশ পাকিস্তান সফর করেছে। পাকিস্তানের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) এবারের আসর করোনায় স্থগিত হয়ে যাওয়ার আগে তো সব ম্যাচই হয়েছে পাকিস্তানে। পঞ্চম আসরে এসে প্রথমবারের মতো পিএসএলের সব ম্যাচ হলো পাকিস্তানে। তবে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের মতো বড় দেশগুলো এখনও পাকিস্তানে আসার ব্যাপারে তেমন রাজি নয়।