বিশ্ব সংবাদ

পাকিস্তানে পঙ্গপালের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী

শেয়ার বিজ ডেস্ক: পাকিস্তানে ফসলের ক্ষেতে পঙ্গপালের আক্রমণ শুরু হয়েছে। এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে দেশটির হাজার হাজার সেনা। খুব দ্রুত পঙ্গপালের আক্রমণ ঠেকাতে না পারলে শত শত কোটি ডলারের ফসল নষ্ট হবে এবং এতে মারাত্মক রকমের খাদ্যসংকটে  পড়তে পারে দেশটি। খবর: পার্স টুডে।

পাক সামরিক বাহিনী এবং কৃষি মন্ত্রণালয় ও খাদ্য বিভাগ পঙ্গপালের আক্রমণ ঠেকানোর জন্য যৌথভাবে কীটনাশক ব্যবহার শুরু করেছে। এ কাজে তারা উড়োজাহাজ ব্যবহার করছে। গত শুক্রবার পাকিস্তান সরকার জানিয়েছে, পঙ্গপালের আক্রমণ ঠেকানোর জন্য কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন করা হয়েছে, যাতে পাঁচ হাজার ১৫৬ বর্গকিলোমিটার এলাকার ফসল রক্ষা করা যায়।

পাকিস্তানের সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, গত তিন দশকের মধ্যে এবারই সবচেয়ে মারাত্মক রকমের আক্রমণ শুরু করেছে পঙ্গপাল। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো যখন পাকিস্তান প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মোকাবিলা করছে, তখনই পঙ্গপালের আক্রমণ শুরু হলো।

পঙ্গপাল দলবেঁধে চলে এবং একদলে পাঁচ কোটির বেশি পোকা থাকতে পারে। এক দিনে এ পঙ্গপাল ৯০ মাইল পর্যন্ত পথ পড়ি দিতে পারে এবং  প্রতি বর্গমিটার ফসলের ক্ষেতে এক হাজারটি পঙ্গপাল বসতে পারে।

সাম্প্রতিক দিনগুলোয় পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের পূর্বাঞ্চল, সিন্ধু প্রদেশের দক্ষিণাঞ্চল এবং বেলুচিস্তান প্রদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে পঙ্গপালের আক্রমণ দেখা দিয়েছে। এ কারণে পাকিস্তানের খাদ্য নিরাপত্তা ঝুঁকির মুখে পড়েছে।

শুধু পাকিস্তানই নয়, ঘূর্ণিঝড় আম্পানের পর দক্ষিণ এশিয়ায় পঙ্গপালের এ নতুন বিপদ দেখা দিয়েছে। বঙ্গোপসাগর থেকে আসা ঝড় থেমে গেলেও পাকিস্তানের পর ভারতজুড়ে পঙ্গপালের ‘ঝড়’ শুরু হয়েছে। রাজস্তান, পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্রের পর পঙ্গপালের দল দেশটির মধ্য ও উত্তর প্রদেশে একের পর এক জমির ফসল খেয়ে সাবাড় করে দিচ্ছে। এখন সেটি এগিয়ে আসছে ভুপাল ও ওড়িশার দিকে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..