স্পোর্টস

পাকিস্তান ক্রিকেট নিয়ে নতুন ভাবনা ইমরানের

 

ক্রীড়া ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েও ক্রিকেটের প্রতি মায়া ছাড়তে পারেননি ইমরান খান। এবারের বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের ফল নিয়ে সন্তুষ্ট নন দেশটির ক্রীড়াপ্রেমীরা। সে দলে যোগ দিলেন ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানও। নিজের দেশের ক্রিকেটকে নতুন করে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।
বিশ্বকাপের আগেও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কর্তারা এবং স্কোয়াডের খেলোয়াড়রা গিয়েছিলেন ইমরান খানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্য। তাতেই বোঝা যায়, ক্রিকেটের প্রতি ইমরানের আগ্রহ মোটেই কমেনি, বরং বেড়েছে। এবারের ব্যর্থতাকে কাটিয়ে উঠে দলকে আবারও ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা তার। সম্প্রতি এক টকশোতে ইমরান খান বলেন, ‘আমিও ইংল্যান্ডে গিয়েছিলাম এবং সেখান থেকেই ক্রিকেটের অনেক কিছু শিখেছি। যখন সেখান থেকে ফিরেছি, আমরা আমাদের ক্রিকেটারদের মান উন্নত করেছি। এই বিশ্বকাপ শেষে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে আবার ঢেলে সাজানোর।’
নিজেদের সেরা ক্রিকেট এবার খেলতে পারেনি পাকিস্তান। কিন্তু ইমরান খান আগামী বিশ্বকাপে আনতে চান আমূল পরিবর্তন, ‘আমার কথা মনে রাখবেন, আমাদের দলটি অনেক পেশাদার। আগামী বিশ্বকাপে দেখবেন এদের পরিবর্তন। আমরা চলমান নিয়মনীতির পরিবর্তন করব এবং একজন একজন করে সেরা ও দক্ষ ক্রিকেটার তুলে আনব।’
১৯৯২ সালে বিশ্বকাপ জয়কে অনেকেই ইমরানের নেতৃত্বের গুণ হিসেবেই বিবেচনা করে থাকেন। তাতে খুব একটা দোষও দেওয়া যায় না। তখনকার সময় ইমরানের পাকিস্তান ততটা শক্তিশালী ছিল না। তাছাড়া বিশ্বকাপে আন্ডারডগ হিসেবেই খেলতে গিয়েছিল দলটি। ঠিক ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দলের মতোই। কে আশা করেছিল পাকিস্তান সেমিফাইনালে ইংল্যান্ড ও ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিতবে?

 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..