দিনের খবর প্রথম পাতা

পিকে হালদারসহ ১২৯ জনকে ফের হাইকোর্টে তলব

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইন্টারন্যাশনাল লিজিং থেকে টাকা নিয়ে ফেরত না দেয়ায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে কারণ দর্শানোর জন্য দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) কেন নির্দেশ দেয়া হবে নাÑতা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। ঋণের অর্থ পরিশোধ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তারিখ উল্লেখসহ ব্যাখ্যা জানাতে আগামী ২৪ ও ২৫ মে তাদের আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগ নিয়ে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক ও রিলায়েন্স ফাইন্যান্স লিমিটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) পিকে হালদার দেশের বাইরে পলাতক। তলবের তালিকায় তার সহযোগী হিসেবে পরিচিত উত্তম কুমার মিস্ত্রি, রামপ্রসাদ রায় ও সুব্রত দাসের নামও রয়েছে।

গত ১৬ মার্চ হাইকোর্টের বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক বেঞ্চ এ বিষয়ে আদেশ দেন। ওই আদেশের লিখিত অনুলিপি প্রকাশিত হয়েছে গতকাল। এরপর আগামী ২৪ ও ২৫ এপ্রিল এ বিষয়ে পর্যায়ক্রমে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বলেও আদেশে বলা হয়েছে। গত ১৬ মার্চ আদালতে ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহফুজুর রহমান মিলন।

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, তিনি নানা কৌশলে নামে-বেনামে অসংখ্য কোম্পানি খুলে শেয়ারবাজার থেকে বিপুল পরিমাণ শেয়ার কেনেন এবং ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে ও পরে নিজের আত্মীয়, বন্ধু ও সাবেক সহকর্মীসহ নানা ব্যক্তিকে পর্ষদে বসিয়ে অন্তত চারটি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ নেন।

এই চার কোম্পানি হলো ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস (আইএলএফএসএল), পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, এফএএস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি (বিআইএফসি)। এসব কোম্পানি থেকে তিনি ঋণের নামে বিপুল অঙ্কের টাকা সরিয়ে বিদেশে পাচার করেছেন বলে তদন্তকারীদের ভাষ্য।

এর মধ্যে আইএলএফএসএল গ্রাহকদের অভিযোগের মুখে গত বছরের শুরুতে পিকে হালদারের বিদেশ পালানোর পর দুদক তার ২৭৫ কোটি টাকার ‘অবৈধ সম্পদের’ খবর দিয়ে মামলা করে। দুদক কর্মকর্তারা বলছেন, পিকে হালদার নিজ, আত্মীয়, বন্ধু ও কর্মচারীদের নাম ব্যবহার করে আটটি কোম্পানিতে বিপুল অঙ্কের টাকা বিনিয়োগ করেছেন, যার ‘বৈধ কোনো উৎস’ অনুসন্ধানে মেলেনি। পিকে হালদারকে গ্রেপ্তারে ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড নোটিস জারি করা হয়েছে। তার মা লীলাবতী হালদারসহ ২৫ জনের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..